আরব বিশ্বে জ্বালানি তেলবহির্ভূত বাণিজ্যে উন্নতি

আরব বিশ্বে জ্বালানি তেলবহির্ভূত বাণিজ্যে উন্নতি

জ্বালানি তেল বাণিজ্য ছাড়াও আরব বিশ্বের বড় অর্থনীতিগুলোয় প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। মূলত করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর এসব ব্যবসায় গতি আসে। আইএইচএস মার্কিটের পারচেজিং ম্যানেজার সূচক অনুযায়ী, ফেব্রুয়ারির তুলনায় মার্চে প্রবৃদ্ধি খুব সামান্য কমেছে। কিন্তু তুলনামূলকভাবে বেসরকারি জ্বালানি তেলবহির্ভূত খাতগুলোর ভালো রকমের উত্থান হয়েছে। এসব খাতের বিস্তৃতি যেমন বেড়েছে, কেনাবেচাও বেড়েছে। খবর ন্যাশনাল নিউজ।

সাম্প্রতিক এক জরিপে দেখা গেছে, সৌদি আরবের কর্মসংস্থান পরিস্থিতি বেশ স্থিতিশীল অবস্থায় আছে। কিছু ক্ষেত্রে এটি কভিড-১৯ মহামারী শুরুর আগের সময়ের চেয়েও এগিয়ে রয়েছে। ক্রমবর্ধমান উৎপাদন প্রতিষ্ঠানগুলোকে কেনাবেচা বাড়াতে উৎসাহ দেয়া হচ্ছে। কিছু প্রতিষ্ঠান তাদের স্টক শেষ করে ফেলছে। এর মাধ্যমে বোঝা যায় যে ক্রয়ক্ষমতা মাঝারি মানে বেড়েছে।

একটি জরিপ বলছে, নির্মাণ শিল্প খাতের কর্মকাণ্ড মার্চে সংযুক্ত আরব আমিরাতের অর্থনীতিকে দারুণভাবে এগিয়ে নিয়ে গেছে। কভিড-১৯ প্রতিরোধী টিকা কার্যক্রম থেকে পাওয়া আশাবাদ ভবিষ্যৎ কর্মকাণ্ডকে গতিশীল করেছে। সামনের দিনগুলোয় মহামারী সম্পর্কিত বিধিনিষেধ উঠে গেলে সামনে ব্যবসার জন্য আরো ভালো দিন প্রত্যাশা করছেন ব্যবসায়ীরা।

সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত উভয়ই তাদের অর্থনীতির দ্বার উন্মুক্ত করেছে। ব্যবসার ক্ষেত্রে কিছু বিধিনিষেধও শিথিল করা হয়েছে। কারণ হিসেবে গণটিকাদান কর্মসূচির কথা বলা হচ্ছে।

ব্লুমবার্গের ভ্যাকসিন ট্র্যাকারের হিসাব অনুযায়ী, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৮৬ লাখের বেশি টিকা সরবরাহ করা হয়েছে। এ সংখ্যা দেশটির মোট জনসংখ্যার তুলনায় প্রায় ৪০ শতাংশ। এ পর্যন্ত দেশটিতে ৩ কোটি ৮৫ লাখ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার সহজলভ্যতা ও টিকার সহজপ্রাপ্যতা দেশটির ব্যবসা খাতে আত্মবিশ্বাস নিয়ে এসেছে।

তবে বিশ্বব্যাপী টিকাদান কার্যক্রম চললেও কভিড-১৯ রোগের তৃতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে। ইউরোপ, এশিয়া ও উত্তর আমেরিকার অনেক দেশে নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা ১৩ দশমিক ১ কোটি ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে সাড়ে ২৮ লাখ।

তবে সব মিলিয়ে আরব বিশ্বে ভবিষ্যৎ বাণিজ্যের কর্মকাণ্ড বেশ ইতিবাচক। ব্যবসায়ীরা বলছেন, টিকাদান কর্মসূচি ও নতুন উদ্যমে ব্যবসা শুরু করার কারণে এ অঞ্চলের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

Related Posts

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

সর্বশেষ