বাইডেনের অভিষেকের আগেই হোয়াইট হাউস ছাড়ছেন ট্রাম্প

বাইডেনের অভিষেকের আগেই হোয়াইট হাউস ছাড়ছেন ট্রাম্প

বিদায়বেলায় বক্তৃতা দেওয়া, উত্তরসূরিকে বরণ করা এবং তাঁর জন্য শুভেচ্ছাবার্তা রেখে যাওয়া—এমন সব রেওয়াজ পায়ে ঠেলে হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরিকল্পনা করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর সেটা তিনি করবেন জো বাইডেনের অভিষেকের আগেই।

স্থানীয় সময় আগামী বুধবার দুপুরে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন ডেমোক্র্যাট নেতা বাইডেন। সেদিন অভিষেক অনুষ্ঠানে ট্রাম্প থাকবেন না, সেটা বলে দিয়েছেন বহু আগেই। শুধু তা-ই নয়, সেদিন সকাল সকাল হোয়াইট হাউস ছেড়ে বেরিয়ে যাবেন এ রিপাবলিকান নেতা। প্রথমে তিনি গত মঙ্গলবারই রাজধানী ছাড়ার কথা ভেবেছিলেন। শেষ পর্যন্ত তিনি বুধবার সকালে ফ্লোরিডায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বলে জানায় সংশ্লিষ্ট দুটি সূত্র।

বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট হিসেবেই আগামী বুধবার সকালে হোয়াইট হাউস ত্যাগ করবেন ট্রাম্প। শেষবারের মতো এয়ারফোর্স ওয়ান বিমানে করে চার বছরের আবাসন ত্যাগ করবেন তিনি। প্রথা ভেঙে ট্রাম্প হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরিকল্পনা করলেও বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক থাকছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। এদিকে ট্রাম্পের বিদায়ের আগেই তাঁর ব্যক্তিগত মালপত্র গত শুক্রবার হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাকযোগে সরিয়ে নিতে দেখা গেছে।

হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর ট্রাম্পের গন্তব্য সম্পর্কে সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, বুধবার সকালে তিনি হোয়াইট হাউস থেকে ফ্লোরিডায় মার-আ-লাগোতে যাওয়ার আগে ম্যারিল্যান্ডের জয়েন্ট বেইস এন্ড্রুস সামরিক স্থাপনায় থামবেন। সেখানে সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে তাঁকে বিদায়ি অভিবাদন জানানো হবে। তবে ট্রাম্পের পরিকল্পনা যেকোনো মুহূর্তে বদলে যেতে পারে এবং বুধবার কখন তিনি বক্তৃতা দেবেন, তা-ও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বাইডেনের শপথ গ্রহণের আগ পর্যন্ত ট্রাম্পই প্রেসিডেন্ট। তাই তিনি ফ্লোরিডা পর্যন্ত যাওয়ার জন্য শেষবারের মতো প্রেসিডেন্টের জন্য নির্ধারিত এয়ারফোর্স ওয়ান বিমান ব্যবহার করতে পাবেন, এমনটা নিশ্চিত হওয়া গেছে। ফ্লোরিডার পাম বিচে মার-আ-লাগো অবকাশযাপন কেন্দ্রেই শুরু হবে ট্রাম্পের প্রেসিডেন্সিপরবর্তী জীবন। হোয়াইট হাউসে তাঁর উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করা একাধিক ব্যক্তিও সেখানেই তাঁর সঙ্গে কাজ করার পরিকল্পনা করছেন।

ট্রাম্পের গন্তব্য জানা গেলেও অনিশ্চয়তা আরো আছে। প্রথা অনুযায়ী বিদায়ি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওভাল অফিসের ড্রয়ারে পরবর্তী প্রেসিডেন্টের জন্য একটি চিঠি রেখে যান। চিঠিতে নতুন প্রেসিডেন্টে প্রতি পূর্বসূরির শুভেচ্ছার পাশাপাশি নানা পরামর্শ থাকে। ট্রাম্প সেই প্রথা পালন করবেন কি না, তা নিশ্চিত নয়। চিঠি রেখে গেলেও তাতে কী লেখা থাকবে, সেটা নিয়ে নানা প্রশ্ন ঘুরছে উত্সুকদের মনে।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে দুই দফা অভিশংসিত হওয়া একমাত্র প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তাঁর বিদায়ের আগে আরো অনেককে ক্ষমা ও দায়মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন। তিনি নিজেই নিজেকে ক্ষমা করে দেওয়ার নজিরবিহীন পদক্ষেপ নেওয়ার ব্যাপারেও পরামর্শ নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম।

কমলার সঙ্গে কথা বলেছেন পেন্স : এদিকে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স টেলিফোনে কথা বলেছেন তাঁর উত্তরসূরি কমলা হ্যারিসের সঙ্গে। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়ার কথা বলেছেন পেন্স।

অন্যদিকে ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হোয়াইট হাউসের বেশ কয়েকজন উপদেষ্টা অভিষেকের আগে হোয়াইট হাউসে বাইডেনের সঙ্গে একটি বৈঠকের আয়োজন করতে ট্রাম্পকে অনুরোধ জানালেও তাতে কাজ হয়নি। সূত্র : এএফপি, সিএনএন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

Related Posts

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

সর্বশেষ