হজম শক্তি বাড়াবে ও পাকস্থলির সমস্যা দূর করবে আলু

আমরা সবাই খাই ফলের রস। কিন্তু আলুর রস কী খাবো? এই আলুর রসে থাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ। আলুর রসে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা থাকায় এটি স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল। নিয়মিত আলুর রস খেলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

আলুর রস হজম শক্তি বাড়ায়, অ্যাসিডিটি কমায় ও পাকস্থলির সমস্যা দূর করে। লাল আলুর রস আলসার কমাতে সাহায্য় করে। আলুর রসে ভিটামিন-সি থাকায় এটি সর্দি-কাশি কমাতে সাহায্য় করে।

কাঁচা আলুর রসে প্রাকৃতিক সুগার ও কার্বোহাইড্রেট থাকায়, এটি শারীরিক শক্তি বাড়াতে সাহায্য় করে।

ওজন কমাতে ও ক্ষত স্থান থেকে রক্তপাত কমাতে আলুর রস ভাল কাজ দেয়। লিভার পরিষ্কার রাখতে খুব ভাল কাজ দেয় আলুর রস। আলুর রস হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

ভূতের আছর থেকে পরিবারকে বাঁচাতে খুনির পৈশাচিক কাণ্ড!

প্রতিবেশীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে তার হৃৎপিণ্ড রান্না করে খেয়েছেন ঘাতক পরিবার। এমনই পৈশাচিক কাণ্ড ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমা প্রদেশে। ভূতের আছর থেকে বাঁচতে এই গা শিউরে ওঠা বিভৎস পরিকল্পনা করে হত্যাকারী। খবর ডেইলি মেইলের।

জানা গেছে, লরেন্স অ্যান্ডারসন (৪২) ওকলাহোমার চিকাশার বাসিন্দা। তিনি গত ৯ ফেব্রুয়ারি তার প্রতিবেশী আন্দ্রেয়া লিন ব্ল্যাঙ্কেনশিপকে (৪১) ছুরিকাঘাত করেন বলে অভিযোগ। পরে অ্যান্ডারসন তার হৃৎপিণ্ড কেটে বের করে নেন। এরপর হৃৎপিণ্ড নিয়ে যান তার চাচা-চাচির বাড়ি। ওই ব্যক্তি (লরেন্স অ্যান্ডারসন) আলু দিয়ে হৃৎপিণ্ড রান্না করেছিলেন। তার ইচ্ছা ছিল রান্না করা ওই হৃৎপিণ্ড তার পরিবারকে খাওয়াবেন। ভূতের আছর থেকে তার পরিবারকে বাঁচাতে এই কাজ করেছিলেন।

তবে এত কিছু করেও রক্ষা পাননি খুনি অ্যান্ডারসন। স্থানীয় পুলিশ তাকে আটক করে ওই ঘটনার দিনই। বর্তমানে লরেন্স অ্যান্ডারসন স্থানীয় গ্রেডি কাউন্টি জেলে বন্দি। তার অভিযোগগুলো এখন বিচারাধীন। গ্রেডি কাউন্টির জেলা অ্যাটর্নি জেসন হিক্স বলেছেন, তার মৃত্যুদণ্ডের নথিপত্র ‘টেবিলে রয়েছে’।

আত্মসমর্পণের পর জামিন পেলেন মিলা

জনপ্রিয় পপ গায়িকা মিলা ইসলাম আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন। অ্যাসিড হামলার মাধ্যমে হত্যাচেষ্টার অভিযোগের মামলায় দশ হাজার টাকার মুচলেকায় জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ বুধবার মিলা তার আইনজীবীর মাধ্যমে ঢাকার অ্যাসিড অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। পরে ট্রাইব্যুনালের বিচারক দিদারা চদ্রনা তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির না হওয়ায় বিচারক মিলা ও তার সহযোগী কিম জন পিটার হালদারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ৫ জুন এ সংগীতশিল্পীর বিরুদ্ধে অ্যাসিড হামলার অভিযোগে মামলা করেন সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির বাবা এস এম নাসির উদ্দিন।

বিডি-প্রতিদিন

মহেশ ভাটের পরকীয়ায় আসক্তি নিয়ে মুখ খুললেন মেয়ে পূজা

বলিউডের খ্যাতনামা পরিচালক মহেশ ভাট। সম্প্রতি স্ত্রী থাকার পরেও এই পরিচালকের অন্য নারীর প্রতি আসক্তি মুখ খুলেছেন তার প্রথম পক্ষের মেয়ে পূজা ভাট। প্রথম স্ত্রী কিরন ভাট থাকতেই সোনি রাজদানের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়ান এই নির্মাতা। সোনি রাজদানের জন্যই তার কাছ থেকে সরে গেছেন বাবা। সেই কারণে সোনি রাজদানকে সহ্য করতে পারতেন না পূজা ভাট।

৪৯ তম জন্মদিনে এবার নিজের ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে খোলসা করলেন পূজা ভাট। পূজার জন্মদিনে অভিনেত্রীর পুরনো একটি ভিডিও ভাইরাল হতে শুরু করেছে। যেখানে সৎ মা সোনি রাজদানের সঙ্গে তার প্রথম দিকের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলতে শোনা যায় পূজা ভাটকে।

মহেশ ভাটের প্রথম পক্ষের মেয়ে পূজা বলেন, তার বাবা যখন বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়ান, সেই কথা তিনিই প্রথমে জানতে পারেন। বাবা যখন ফোন করে সোনি রাজদানের কথা জানান তাকে, সেই সময় শুধু শুনেছিলেন তিনি। বাবার সামনে কোনও কথা বলতে পারেননি। তবে তার মা কিরণ ভাট থাকা সত্ত্বেও তিনি কীভাবে সোনি রাজদানের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়াতে পারেন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে পূজার মনে। বিষয়টিকে প্রথমে মেনে নিতে পারেননি পূজা। পরে ক্রমশ সোনি রাজদানের সঙ্গে তার সম্পর্ক সাবলীল হতে শুরু করে।

তার বাবা-মা কিরণ এবং মহেশ ভাটের সঙ্গে মনের মিল না হওয়াতেই ওই ধরনের ঘটনা ঘটে বলে মেনে নিতে শুরু করেন পূজা ভাট। ফলে সোনি রাজদানকে তিনি মেনে নিতে শুরু করেন। বর্তমানে সোনি রাজদানের দুই মেয়ে শাহিন ভাট এবং আলিয়া ভাটের সঙ্গেও পূজার সম্পর্ক বেশ ভাল। শাহিন ভাটের বইয়ের উদ্বোধন হোক কিংবা আলিয়ার সিনেমার প্রিমিয়ার, সব জায়গাতেই দেখা যায় পূজা ভাটকে।

ঢাকা বারের নির্বাচন: দ্বিতীয় দিনের ভোট গ্রহণ চলছে

বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০২১-২০২২ সালের কার্যকরী কমিটি গঠনের নির্বাচনে দ্বিতীয় দিনের ভোটগ্রহণ চলছে।

আজ সকাল ৯টা থেকে আইনজীবী সমিতি ভবনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। মাঝে এক ঘণ্টা বিরতি দিয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোট চলবে। আগামীকাল শুক্রবার ভোট গণনা শেষে ফল ঘোষণা করা হবে।

এ বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার আব্দুল্লাহ আবু গণমাধ্যমকে বলেন, নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেল এবং বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলে মোট ৪৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এবার আইনজীবী সমিতিতে ২৫ হাজার ২০০ জন আইনজীবী সদস্য রয়েছেন। যার মধ্যে এ নির্বাচনে ১৭ হাজার ৫৬৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

বিডি প্রতিদিন

বন্দুকযুদ্ধ হলে পুলিশ কি অস্ত্র ফেলে পালিয়ে আসবে: আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, সন্ত্রাসীরা গুলি করলে সেটা প্রতিহত করতেই সরকার পুলিশকে অস্ত্র দিয়েছে। প্রয়োজনের নিরিখে জীবন রক্ষার জন্যই সরকারি অস্ত্র ব্যবহার করা হয়।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের (সিপিএইচ) নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রায় পাঁচমাস পর মঙ্গলবার কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে, এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, বন্দুকযুদ্ধ হলে কি আমাদের লোকজন বন্দুক ফেলে পালিয়ে চলে আসবে? জকির ডাকাত, ভয়াবহ ডাকাত। যান কক্সবাজারে গিয়ে খবর নেন। গত তিন বছরে তার কাছ থেকে কমপক্ষে দেড়শ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল যখন গুলিতে সে মারা গেছে তখনও তার কাছ থেকে নয়টা অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। যখন এ ধরনের কোনো বিপদজনক আর্মস গ্যাং গুলি করবে, তখন কি আমরা শহীদ হয়ে চলে আসবো?

যেখানে আর্মস গ্যাং আমাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ব্যবহার করবে সেখানে আমরা প্রয়োজনের নিরিখে জীবন রক্ষার জন্য সরকারি অস্ত্র ব্যবহার করবো। সরকারি অস্ত্র দেওয়া হয়েছে সেটাকে প্রতিহত করবার জন্য। সরকার অস্ত্র দিয়েছে লাঠি হিসেবে ব্যবহারের জন্য না। লাঠি এক রকম আর লিথেল উইপন আরেক রকম। সরকার যদি শুধু লাঠি দেয়, আমরা লাঠিই ব্যবহার করবো।

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার এলাকার মানুষ জানে, জকির ডাকাত কী জিনিস, তার হাতে কত লোক অপহৃত হয়েছেন আর কতজন মারা গেছেন। তাই যেটা হয়েছে, সেটা আমি মনে করি প্রয়োজন হলে হবে, না হলে হবে না। এখানে ঘোষণা দিয়ে চালু করা বা বন্ধ করার কোনো বিষয় নেই।

এর আগে সিপিএইচর নবনির্মিত ভবন প্রসঙ্গে আইজিপি বলেন, গত বছরে মার্চে অতিমারি করোনার আবির্ভাব ঘটে, আর এতে সবচেয়ে বড় ক্যাজুয়ালিটি হয়েছে বাংলাদেশ পুলিশের। করোনায় প্রায় ৮৩ জন সদস্য শাহাদাত বরণ করছেন, সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে ২১ হাজার সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল একটি জেনারেল হাসপাতাল ছিল, কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে আমরা এটিকে দ্রুত কোভিড হাসপাতাল হিসেবে রূপান্তর করি।

নতুন ভবনের ফলে এ হাসপাতালের আইসিইউ, সিসিইউ, এইচডিইউ ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি পাবে জানিয়ে তিনি বলেন, পুলিশ সদস্যরা খুব চ্যালেঞ্জিং পরিবেশে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। নানা কারণে পুলিশে হার্টের রোগী, লাংস, কিডনি ও ক্যান্সারের রোগী প্রচুর। প্রতিবছর কোটি কোটি টাকা খরচ করি তাদের বাইরে ট্রিটমেন্ট করানোর জন্য। এ হাসপাতালকে একটা পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল তৈরির চেষ্টা করছি, যাতে সব ধরনের চিকিৎসা নিশ্চিত করা যায়। আজকের পর এখানকার চিকিৎসা সুবিধা অনেক বেশি সম্প্রসারিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে বিভাগীয়-জেলা পুলিশ হাসপাতালগুলোকে উন্নত করার চেষ্টা করছি, যা পর্যায়ক্রমে করা হবে। পুলিশ মেডিক্যাল সার্ভিসেরও চেষ্টা চলছে।

অপর এক প্রশ্নে তিনি বলেন, পুলিশের মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বিষয়ে একাধিকবার সরকারের সঙ্গে কথা হয়েছে। এ পর্যায়ে বিষয়টি বিবেচনাধীন রয়েছে। সরকার অনুমোদন দিলে আমরা মেডিক্যাল কলেজ বানাবো।

বিডি প্রতিদিন

রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো বৈদেশিক মুদ্রার রির্জাভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দিন শেষে বৈদেশিক মুদ্রার রির্জাভের পরিমাণ ৪৪ দশমিক ০২৮ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের সঙ্গে রফতানি আয় বেড়েছে। যে কারণে রির্জাভের পরিমাণ ৪৪ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করেছে।

গত ৩০ ডিসেম্বর দেশের রিজার্ভ প্রথমবারের মতো ৪৩ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছিল। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে এশিয়ান ক্লিয়ারিং ইউনিয়নের (আকু) নভেম্বর-ডিসেম্বর মেয়াদের আমদানি বিল পরিশোধের পর তা ৪২ বিলিয়ন ডলারের নিচে নেমে আসে। তবে রেমিটেন্সে ইতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকায় এক মাস না যেতেই রিজার্ভ আবার ৪৪ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করল।

এই রির্জাভ দিয়ে আগামী ১১ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানো যাবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম। আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী, একটি দেশের কাছে অন্তত তিন মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর সমপরিমাণ বিদেশি মুদ্রার মজুদ থাকতে হয়।

বিডি প্রতিদিন

পরীক্ষার দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভের চেষ্টা, আটক ১০

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষা পুনরায় চালু করার দাবিতে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে বিক্ষোভের চেষ্টা করার সময় ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে শাহাবাগ মোড়ে বিক্ষোভ করতে গেলে পুলিশ তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের রমনা জোনের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাতটি সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা চলমান পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার, হল ও ক্যাম্পাস খুলে দেওয়ার দাবিতে নীলক্ষেত মোড়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করা হয়। আন্দোলনের ফলে চলমান ও ঘোষিত পরীক্ষাসমূহ শর্তসাপেক্ষে নেওয়ার কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও সাত কলেজের অধ্যক্ষদের এক ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শর্তসমূহ হল পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে হোস্টেল খোলা হবে না এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

বিডি প্রতিদিন

‘ওভারনাইট বান্দরবান পাঠিয়ে দেব’ বন্ধ চায় সংসদীয় কমিটি

সরকারি কোনো কর্মকর্তা ও কর্মচারীর দাপ্তরিক কাজের ব্যর্থতা হিসেবে পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় পদায়ন করা হয়- এমন প্রচার বন্ধে তথ্য মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা নিতে বলেছে সংসদীয় কমিটি।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির যুক্তি, এই ধরনের প্রচার একটি এলাকা সম্পর্কে সারাদেশের মানুষের মধ্যে বিরূপ ধারণা সৃষ্টি করতে পারে।

বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত এই সংসদীয় কমিটির বৈঠকে একটি টিভি বিজ্ঞাপন চিত্র নিয়ে আলোচনা ওঠে। একটি ব্র্যান্ডের চা পাতার ওই বিজ্ঞাপনে সংলাপ রয়েছে- ‘আপনাকে ওভারনাইট বান্দরবানে পাঠিয়ে দেব’।

বৈঠকে আলোচনায় বলা হয়, এ ধরনের বিজ্ঞাপনে পার্বত্য অঞ্চল বিষয়ে জনমনে বিরূপ ধারণা সৃষ্টি হয়। এতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে পার্বত্য এলাকায় বদলি শাস্তিমূলক বদলি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাবে। সে কারণে এ ধরনের প্রচারণা বন্ধ হওয়া দরকার।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমিটির সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা গণমাধ্যমকে বলেন, “এসব প্রচারণার কারণে এলাকার উপর একটি বিরূপ ধারণার সৃষ্টি হতে পারে। যার কারণে আমরা মন্ত্রণালয়কে বলেছি, এ ধরনের প্রচারণা যাতে বন্ধ হয় তার জন্য যেন তথ্য মন্ত্রণালয়কে বলা হয়।”

বৈঠক সংক্রান্ত সংসদ সচিবালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকে সরকারি কোনো কর্মকর্তা ও কর্মচারীর দাপ্তরিক কাজের ব্যর্থতা হিসেবে পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় পদায়ন করা হবে এ জাতীয় প্রচার-প্রচারণা বন্ধ করতে তথ্য মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করা হয়।

বিডি প্রতিদিন

পিলখানা হত্যাকাণ্ডের এক যুগ : নিহত সেনা কর্মকর্তাদের সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর

রাজধানীর পিলখানায় তৎকালীন বিডিআর সদরদপ্তরে সংঘটিত নৃশংস হত্যাকাণ্ডের এক যুগ পূর্ণ হলো আজ বৃহস্পতিবার। এরই মধ্যে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধিরা রাজধানীর বনানীর সামরিক কবরস্থানে আজ সকাল ৯টার দিকে নিহত সেনা কর্মকর্তাদের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন।

রাষ্ট্রপতির পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম এবং প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকিব আহমদ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এ ছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, তিন বাহিনীর প্রধান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, বিজিবির মহাপরিচালক এবং নিহত কর্মকর্তাদের স্বজনরাও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

২০০৯ সালে বিডিআর (বর্তমানে বিজিবি) সপ্তাহ চলাকালে ২৫ ফেব্রুয়ারি সশস্ত্র বিদ্রোহ করেন বাহিনীর কয়েকশ সদস্য। তাদের হাতে পিলখানা সদরদপ্তরে নিহত হন ৫৭ জন সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জন।

বিডি প্রতিদিন