কমলা হ্যারিসের ভাগ্নিকে সতর্ক করল হোয়াইট হাউস

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের নাম ব্যবহার করছেন তার বোনের মেয়ে মীনা হ্যারিস। এ ব্যাপারে মীনাকে সতর্ক করেছে হোয়াইট হাউস।

হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, মীনা যেভাবে নিজের ব্র্যান্ডের প্রচার ও জনপ্রিয়তা বাড়াতে কমলা হ্যারিসের নাম ব্যবহার করছেন, তা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।

কমলা যেহেতু এখন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট, তাই তাকে বা তার নাম ব্যবহার করার আগে মীনাকে সতর্ক হতে হবে। এ ব্যাপারে নির্দেশ জারি করেছে হোয়াইট হাউসের নীতিবিষয়ক আইনজীবীর দল।

মার্কিন এক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, হোয়াইট হাউস থেকে এমন নির্দেশ পেয়েও নিজের আচরণ বদলাননি মীনা। সম্প্রতি কমলা হ্যারিসের নাম ব্যবহার করে নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থায় কমলাকে নিয়ে একটি ভিডিও তৈরি করেছেন মীনা। কমলার দেওয়া রাজনৈতিক স্লোগান ব্যবহার করেও এক বিশেষ ধরনের হেডফোন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।

পেশায় আইনজীবী মীনা একজন উদ্যোক্তা। নারীদের পোশাকের দাতব্য সংস্থা ফেনোমেনালের প্রতিষ্ঠাতা তিনি। সামাজিক সচেতনতার বার্তা দেয় এমন টি-শার্ট তৈরি করে ফেনোমেনাল।

সম্প্রতি কমলা হ্যারিসকে ইঙ্গিত করে তাদের ‘ভাইস প্রেসিডেন্ট আন্টি’ টি-শার্ট নেট মাধ্যমে বিপুল জনপ্রিয়তা পায়। মীনা নিজে একজন লেখক। কমলার ছোটবেলার গল্প নিয়ে লেখা তার ‘কমলা অ্যান্ড মায়াস বিগ আইডিয়া’ বইটিও দেদার বিক্রি হয়েছে।

হোয়াইট হাউসে কমলার শপথ নেওয়ার আগের দিন মীনা তার সাম্প্রতিক বই ‘অ্যাম্বিশাস গার্ল’ প্রকাশ করেন। তবে হোয়াইট হাউস সাফ জানিয়ে দিয়েছে, খালা-বোনের মেয়ের সম্পর্ক যেমনই হোক, নিজের ব্র্যান্ডের জনপ্রিয়তা বাড়াতে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের নাম ব্যবহার করতে পারবেন না মীনা।

সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে।

অক্সফোর্ডের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিল ডাব্লিউএইচও

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। এনবিসি নিউজ এক প্রতিবেদনে বলছে, বিশেষজ্ঞদের একটি দল ওই টিকা ব্যবহারের সুপারিশ করার পর ঘোষণাটি দিল ডাব্লিউএইচও।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেডরস অ্যধহানম ঘেবরেয়াসাস সাংবাদিকদের বলেন, করোনাভাইরাসের টিকা দ্রুত বিতরণের ব্যাপারে সব ধরনের বন্দোবস্ত হয়ে গেছে। উৎপাদন বাড়াতে হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে ডাব্লিউএইচও’র বিশেষজ্ঞ দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার দুটি ডোজ আট থেকে ১২ সপ্তাহের ব্যবধানে দিতে হবে।

এদিকে সারাবিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১০ কোটি ৯৬ লাখ ৯০ হাজার ৬২ জন এবং মারা গেছে ২৪ লাখ ১৯ হাজার একশ ৭২ জন।

সূত্র: এনবিসি নিউজ, ওয়ার্ল্ডয়োমিটার

লিবিয়া উপকূল থেকে ৩১৮ অভিবাসী উদ্ধার

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) গত সপ্তাহে লিবিয়ার উপকূল থেকে ৩১৮ জন অবৈধ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে। গতকাল সোমবার সংস্থাটি এ তথ্য জানায়। জাতিসংঘ অভিবাসন সংস্থাটির এক বিবৃতিতে বলা হয়, গত ৯ থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি এই সাতদিনে ৩১৮ অবৈধ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় তাদেরকে সমুদ্র পথে অন্য কোনো দেশে যাওয়া আটকে তাদের লিবিয়ায় ফেরত পাঠানো হয়।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ২০২১ সালের এ পর্যন্ত মোট দুই হাজার ২৭৪ অবৈধ অভিবাসীকে সমুদ্র পথে যাত্রা থেকে উদ্ধার করে লিবিয়ায় ফেরত পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে ৩১৩ নারী ও ১৬০ শিশু রয়েছে। চলতি বছরের এ পর্যন্ত ভূমধ্যসাগর পথে ২০ অবৈধ অভিবাসী প্রাণ হারিয়েছেন এবং আরো ৭০ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলেও সংস্থাটি জানিয়েছে।

সূত্র: সিনহুয়া।

‘স্মার্ট’ মিসাইলের সফল পরীক্ষা চালাল ইরান

ইরান মধ্যম পাল্লার ‘স্মার্ট’ মিসাইলের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, গত রবিবার সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে তিন শ’ কিলোমিটার পাল্লার এই মিসাইলের পরীক্ষা চালানো হয়।

ইরানের সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল কিউমারস হায়দারি রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ইসলামিক রিপাবলিক নিউজ এজেন্সিকে (ইরনা) জানান, মিসাইলটি নিখুঁত নিশানায় সক্ষম এবং এটি আবহাওয়ার যেকোনো পরিস্থিতিতেই কাজ করতে পারবে। তিনি বলেন, ‘নিজস্ব অস্ত্রকে স্বয়ংক্রিয়, স্মার্ট ও নিঁখুত করার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে তেহরান।’ তবে কোথায় এই পরীক্ষা করা হয়েছে, ওই বিষয়ে কিছু জানাননি তিনি।

সম্প্রতি ইরান তার সামরিক মহড়া বাড়িয়েছে। অনেকেই মনে করছেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তিতে ফেরাতে চাপ দেওয়ার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে এই পদক্ষেপ নিচ্ছে ইরান।

জো বাইডেনের পূর্বসূরী ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালে এই চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেন। তবে বাইডেন বলছেন, ‘নির্দিষ্ট শর্তের’ অধীনে ওয়াশিংটন এই চুক্তিতে ফিরবে। ওই চুক্তি অনুযায়ী ইরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধের কাজ সীমিত করার বিনিময়ে দেশটির ওপর থেকে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার শর্ত করা হয়েছিল।

সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর।

ফিলিস্তিনের গাজায় পাঠানো করোনার টিকা ঢুকতে দিল না ইসরাইল

ফিলিস্তিনের অধিকৃত গাজায় পাঠানো দুই হাজার ডোজ করোনা টিকা ঢুকতে বাধা দিয়েছে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আলকাইলা গতকাল সোমবার এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, গাজার বাসিন্দাদের স্বাস্থ্য থেকে শুরু করে সব কিছু দেখার দায়িত্ব ফিলিস্তিনের। আন্তর্জাতিক নিয়মনীতিকে অবজ্ঞা করে ইসরাইল গাজাবাসীর মৌলিক অধিকার হরণ করেছে বলে মনে করেন তিনি।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে গাজায় পাঠানো রাশিয়ার স্পুটনিক-ভি টিকার দুই হাজার ডোজের চালানটি আটকে দেয় ইসরাইলি বাহিনী। অবরুদ্ধ গাজার করোনা হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে কর্মরত স্বাস্থ্যকর্মীদের জরুরিভিত্তিতে দেওয়ার জন্য এগুলো পাঠানো হয়েছিল।

ফিলিস্তিনে এ পর্যন্ত ১৬ লাখ ৮ হাজার ৪৪৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন এক হাজার ৯৩৬ জন।

সূত্র: ইয়েনি সাফাক।

ভারত-চীন সীমান্তে উত্তেজনার জেরে ৫৯টি চীনা অ্যাপ ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার

ভারত-চীন সীমান্তে উত্তেজনার জেরে ৫৯টি চীনা অ্যাপ ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার। এতে বিপাকে পড়েছেন এই অ্যাপগুলোর সঙ্গে যুক্ত থাকা ভারতীয় কর্মীরা। সেখানে শুধু টিকটকে চাকরি করছেন এমন কর্মীর সংখ্যা এক হাজারের বেশি। এমন পরিস্থিতিতে টিকটকের সিইও কেভিন মায়ের কম্পানির ওয়েবসাইটে কর্মীদের উদ্দেশে এক বার্তায় লিখেন, ‘ইন্টারনেটের দুনিয়ায় গণতন্ত্র নিয়ে আসা আমাদের প্রধান লক্ষ্য। এতে অনেকটাই সফল হয়েছি। ভারতীয় আইন অনুযায়ী ব্যবহারকারীদের তথ্য সুরক্ষিত ও গোপন রাখা আমাদের প্রধান গুরুত্ব ছিল। আগামী দিনেও তাই থাকবে। আমরা অন্যান্য বিনিয়োগকারীর সঙ্গে কথা বলছি।’ উল্লেখ্য, ২০১৮ সাল থেকে ভারতে টিকটক অ্যাপটি চালু হয়। বর্তমানে ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০ কোটি।

কেভিন মায়ের, সিইও, টিকটক

ভারতের মধ্যপ্রদেশে বাস খালে পড়ে ৩৭ জনের মৃত্যু

ভারতের মধ্যপ্রদেশের সিধি জেলায় বাস খাদে পড়ে ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজ্যের রাজধানী ভুপাল থেকে ৫৬০ কিলোমিটার দূরে ব্রিজ থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি খাদে পড়ে যায়। এ দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দুর্ঘটনাটিকে ‘ভয়াবহ’ বলে উল্লেখ করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, পাটনা গ্রামের কাছে একটি সেতু থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি খালের পানিতে পড়ে যায়। এসময় বাসটিতে প্রায় ৫০ জন যাত্রী ছিলেন। জেলা পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট ধর্মভীর সিং জানান, নিহতদের মধ্যে ২০ জন পুরুষ, একজন শিশু ও ১৬ জন নারী রয়েছেন। তিনি আরো জানান, এখন পর্যন্ত অনেকেই নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধার কাজ চলছে।

রাজ্যের দুর্যোগ প্রতিক্রিয়া বাহিনী (এসডিআরএফ) এবং অন্যান্য উদ্ধারকারী দল মঙ্গলবার সকাল থেকেই উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী। বেশ কয়েকজন চিকিৎসক এবং অ্যাম্বুলেন্সও দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী এক ভিডিও বার্তায় বলেন, যা ঘটেছে তা সত্যিই খুব দুঃখজনক। উদ্ধারকাজ ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। পানিসম্পদ মন্ত্রী তুলসিরাম সিলাওয়াত এবং পঞ্চায়েতের এমওএস রামখেলাওয়ান ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছেন। দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি করে দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। হতাহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, পুরো রাজ্য ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছে।

সূত্র: এনডিটিভি।

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৪৪

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৪৪ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ।

গ্রেফতারের সময় তাদের হেফাজত থেকে ২৯৯৩ পিস ইয়াবা, ১০৯ গ্রাম হেরোইন ও ২ কেজি ৭৪৫ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নিয়মিত মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে সোমবার সকাল ছয়টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ২৯টি মামলা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন

পদত্যাগের জন্য প্রস্তুত ইসি মাহবুব তালুকদার

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে পদত্যাগ করলে যদি লাভ হয়, দেশের যদি কোনো উপকার হয়, তাহলে আমি যেকোনো মুহূর্তেই পদত্যাগ করতে প্রস্তুত।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

এ সময় তিনি আরও বলেন, এই দাবিটা সম্ভবত আমাদের কাছে নয়, এটা অন্যত্র দাবি করা হয়েছে। এর মধ্যে একটা কথা আছে। আমরাতো একটা প্রসেসের মধ্য দিয়ে নির্বাচন কমিশনার হয়েছি। এখন যদি সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল আমাদের ব্যাপারে গঠিত হয়। আমাদের কোনোকিছু বক্তব্য তো নাই। ঠিক না? আর একটা প্রসেসের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত হওয়ার পরে আমি পদত্যাগ করে ফেললাম এটা কোনো বিষয় হয় না।

তিনি বলেন, আমি এই পর্যন্ত তিনবার পদত্যাগের অনুরোধ পেয়েছি। এখন কতবার পদত্যাগ করবো। সেটাও একটা প্রশ্ন।

নির্বাচন কমিশনের পঞ্চম বর্ষের প্রারম্ভে আমার বক্তব্য উল্লেখ করে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশনের আজ ৪ বছর পূর্ণ হলাে। পেছনের দিকে তাকিয়ে মনে হচ্ছে আমাদের আত্মবিশ্লেষণ প্রয়ােজন। প্রায় সব নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে আমরা তৃপ্তি বােধ করি। কিন্তু নির্বাচন বিষয়ে আমাদের সকল দাবি জনগণের উপলব্ধির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। কেবল রাজনৈতিক দল নয়, নীরব জনগােষ্ঠীর অশ্রুত ভাষা শ্রবণের প্রচেষ্টা থাকা প্রয়ােজন।

তিনি বলেন, বর্তমানে নির্বাচন এককেন্দ্রিক হয়ে যাচ্ছে। এককেন্দ্রিক নির্বাচন বহুদলীয় গণতন্ত্রের উপাদান হতে পারে না। যেহেতু নির্বাচন ছাড়া গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা যায় না, সেহেতু নির্বাচনের প্রতিটি আইনকানুন ও আচরণবিধি কঠোরভাবে পালনের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রকে পরিপালন ও সংরক্ষণ করতে হয়। কিন্তু নির্বাচন প্রক্রিয়া যথাযােগ্য সংস্কার না করার কারণে নির্বাচন ব্যবস্থাপনা এখন গভীর খাদের কিনারে। এই সংস্কার নির্বাচন কমিশনের ওপর নির্ভর করে না। এজন্য রাজনৈতিক দলগুলাে এবং সংশ্লিষ্ট সকলের সমঝােতা প্রয়ােজন।

তিনি আরও বলেন, পৌরসভা নির্বাচনের ফলাফল দেখে আমার ধারণা হচ্ছে নির্বাচন নির্বাসনে যেতে চায়। নির্বাচন অর্থ অনেকের মধ্য থেকে ভােটের মাধ্যমে বাছাই। কিন্তু সে অবস্থা আজকাল পরিলক্ষিত হয় না। প্রশ্ন জাগে, নির্বাচন কি এখন পূর্বে নির্ধারিত? নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক ও সর্বজন গ্রহণযােগ্য না হলে, কোনাে বিতর্কিত নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র আপন মহিমায় বিকশিত হতে পারে না।

আগামী মে মাস থেকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন দলীয় প্রতীকে ব্যাপক পরিসরে কয়েক ধাপে অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই নির্বাচনেও সহিংসতার আশংকা করি। আচরণধি লঙ্ঘন ও হানাহানি বর্তমানে নির্বাচনের অনুসঙ্গ হয়ে গেছে। কোনাে অনভিপ্রেত ঘটনাই বিচ্ছিন্ন ঘটনা বলে পাশ কাটিয়ে যাওয়ার উপায় নেই। কারণ কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা মিলে একটি অবিচ্ছিন্ন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। তাই প্রাণহানীর অভিশাপ থেকে বেরিয়ে আসার জন্য শান্তিপূর্ণ পরিবেশ রক্ষার পথ অবশ্যই খুঁজে বের করতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আমাদের উদ্যোগ কেন কার্যকর হচ্ছে না, তা খতিয়ে দেখে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ আবশ্যক।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের কার্যকালের শেষবর্ষের প্রারম্ভে দাঁড়িয়ে একজন আশাবাদী মানুষ হিসেবে ‘যার শেষ ভালাে তার সব ভালাে’ এই প্রবাদবাক্যটিকে কি আশ্রয় করতে পারি? প্রশ্ন রাখেন তিনি।

বিডি প্রতিদিন