সুস্থ থাকতে একটু সচেনতাই যথেষ্ট

সারাদিনের কর্মব্যস্ত জীবনে সকালে উঠে বের হওয়ার আগে মুখের ত্বক পরিষ্কার করে একটু ময়েশ্চারাইজার ও সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। সানস্ক্রিন ত্বককে ধূলা-বালি এবং দূষণ থেকেও রক্ষা করে। নিয়মিত কাজের ফাঁকে ৩-৪ বার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে একটু ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। সারাদিনের কাজের পর দিন শেষে শরীরের সাথে সাথে ত্বকেরও যত্নের দরকার।

বাসায় ফিরে গোসল করার অভ্যাস থাকলে গোসলের আগে মুখে একটু মধু ম্যাসাজ করতে পারেন নয়তো ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। গোসল শেষে শীতকালে অব্যশই বডি লোশন ও ভ্যাসেলিন ব্যবহার করুন। মুখে নাইট ক্রিম বা অ্যান্টি অ্যাজিং ক্রিম দিয়ে চোখের চারপাশে আই ক্রিম লাগিয়ে ঘুমাতে যান। সপ্তাহে ৩ দিন অবশ্যই একটু সময় বের করে মুখে ফেসপ্যাক লাগান। এছাড়াও মুখে এলোভেরা, মুলতানি মাটি, চন্দন, মধু ,টক দই দিতে পারেন।

যখনই ক্লান্তি অনুভব করবেন তখনই মুখে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিন। এতে রক্ত সঞ্চালন বাড়বে। তবে ফ্রিজের পানি কখনও ব্যবহার করবেন না। দিনে অন্তত ৩০ মিনিট শরীর চর্চা বা যোগ ব্যায়াম করুন। এতে আপনার সারা শরীরের রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক থাকবে এবং ত্বকও থাকবে টান টান। ক্লান্তি দূর করতে ম্যাসাজ শরীরের জন্য খুব উপকারি। এছাড়াও যতটুকু সম্ভব হাঁটুন। হাঁটার কোনো বিকল্প নেই। প্রয়োজনে লিফটের বদলে সিঁড়ি ব্যবহার করুন।

এছাড়াও প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় তৈলমুক্ত পুষ্টিকর খাবার, তাজা সবুজ শাক-সবজি, ভিটামিন-সি, বিভিন্ন পদের বাদাম, ফলের রস ও দৈনিক কমপক্ষে ৮ গ্লাস পানি পান করতে হবে। কেননা ‘স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল’।

কিডনির পাথর সারাবে তুলসি পাতা

তুলসি পাতায় রয়েছে একাধিক ঔষধি গুণ এবং রোগ নিরাময়ের ক্ষমতা। ছোটোখাটো অনেক রোগের ওষুধ হিসেবে এই তুলসি পাতা ব্যবহার করা হয়। আজ দেখে নেওয়া যাক এমনই ৫টি শারীরিক সমস্যায় প্রতিকার হিসেবে তুলসি পাতার ব্যবহার।

১) গলা ব্যথা: সামান্য গরম পানিতে তুলসি পাতা দিয়ে সেদ্ধ করে কুলকুচি করলে বা পান পারলে গলার ব্যথা দ্রুত সেরে যাবে।

২) সর্দি ও কাশি: সর্দি-কাশি প্রায় প্রত্যেকটি মৌসুমের খুব সাধারণ একটি সমস্যা যা সবাইকে কষ্ট দেয়। এই সমস্যার হাত থেকে মুক্তি পেতে গেলে তুলসি পাতা ৫ মিনিট ধরে চিবিয়ে রসটি গিলে নিন। তাহলে এই সমস্যার হাত থেকে সহজেই সমাধান পেয়ে যাবেন।

৩) ত্বকের সমস্যা: ত্বকে ব্রণর সমস্যা সমাধানের একটি সহজলভ্য ও অন্যতম উপাদান হল তুলসি পাতা। এ ছাড়াও নানা রকম অ্যালার্জির সমস্যায় তুলসিপাতা অত্যন্ত কার্যকর। তুলসি পাতার পেস্ট তৈরি করে তা ত্বকে লাগালে এই সমস্যাগুলি অনেকটাই কমে যায়।

৪) জ্বর: তুলসি পাতা সব থেকে বেশি যে অসুখের হাত থেকে আপনাকে রক্ষা করবে তা হল জ্বর। চায়ে তুলসি পাতা সেদ্ধ করে পান করলে ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গু প্রভৃতি অসুখ থেকে রক্ষা পেতে পারেন। আপনার পরিবারের কারো জ্বর হলে তাকে তুলসি পাতা এবং দারুচিনি মেশানো ঠাণ্ডা চা পান করান। জ্বর সেরে যাবে দ্রুত।

৫) কিডনির সমস্যা: তুলসি পাতা কিডনির বেশ কিছু সমস্যার সমাধান করে দিতে পারে। তুলসি পাতার রস প্রতিদিন একগ্লাস করে খেতে পারলে, কিডনিতে স্টোন হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কমে যায়। যদি কিডনিতে পাথর জমে যায়, সে ক্ষেত্রে তুলসিপাতার রস টানা ৬ মাস খেতে পারলে সেই স্টোন মূত্রের সঙ্গে বেরিয়ে যায়।

বিডি প্রতিদিন

মান্নাকে নিয়ে অপপ্রচার: এফডিসিতে ইউটিউবারের ওপর ক্ষেপলেন মান্নার স্ত্রী শেলী

মান্নাকে নিয়ে ইউটিউবে অপপ্রচার চালানোর দায়ে এক ইউটিউবারের ওপর রীতিমতো খেপে গেলেন চিত্রনায়ক মান্নার স্ত্রী শেলী। গতকাল শনিবার বিকেলে বিএফডিসির অভ্যন্তরে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, প্রয়াত নায়ক মান্নার স্ত্রী কয়েকটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাতকার দিচ্ছিলেন। এসময়ে কয়েকজন ইউটিউবার সেখানে ঢুকে পড়েন। এর মধ্যে একজন ছিলেন যিনি মান্নার সম্পর্কে অসত্য তথ্য ইউটিউবে প্রচার করেছিলেন। তাকে চিনে ফেলে মান্নার স্ত্রী তাকে প্রশ্ন করতে শুরু করেন।

শেলী বলেন, কেন আপনি মান্নাকে নিয়ে ওইসব বলেছেন, আপনি জানেন মান্নাকে এফডিসির গেটের দারোয়ান মেরেছিল? বলেন, আপনি জানেন? আপনারা এসব মিথ্যা ভিডিও বানিয়ে ভিউ তৈরি করছেন কেন? কেন মান্নার মতো একজনকে আপনারা এভাবে অসম্মান করেন, কেন? বলেন, এভাবে টিআরপির জন্য কেন এসব করেন?

শেলী এ সময় বেশ ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সেখানে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীরাও বিষয়টিকে ভালোভাবে নেননি। পরে ওই ইউটিউবার কিছু না বলেই এফডিসি ত্যাগ করে।

চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কয়েকজন জানান, এদিন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শত শত বহিরাগত ঢুকে পড়েছিল। এর মাঝে বড় একটি শ্রেণি ছিল ইউটিউবার। যারা কোনো তারকা বা চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কাউকে পেলেই তার বক্তব্য নেওয়া শুরু করেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘মান্না ভাইকে নিয়ে এ রকম ভিডিও করা খুবই ঘৃণ্যতম কাজ। আমি বুঝি এফডিসির গেটে যারা থাকে, তারা কেন এদের ঢুকতে দেয়, এরা ঢুকে ক্রমেই বিশৃঙ্খলা তৈরি করে। যার-তার বক্তব্য নিয়ে বড় ও সম্মানী শিল্পীদের অসম্মান করে। আমিও বিষয়টা এফডিসি কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চাই, কেন এসব বহিরাগত মানুষ ঢোকে?’

জানা গেছে, ইউটিউবাররা সাংবাদিক পরিচয়ে এফডিসিতে ঢুকে বিভিন্নজনের সাক্ষাৎকার নেওয়া শুরু করে। এক শ্রেণির ইউটিউবাররা প্রেস লেখা কার্ড ও জ্যাকেট শরীরে জড়িয়ে এফডিসিতে ঢুকে পড়ে। এফডিসিতে এরা বিশৃঙ্খলা তৈরি করে। এদের অত্যাচারে গণমাধ্যমকর্মীরাও পিছিয়ে পড়েন।

বিডি প্রতিদিন

অশ্লীল শুটিং ও পর্নো সাইট চালানোর দায়ে অভিনেত্রী গ্রেফতার

আবারও নীল ছবির দুনিয়ার সঙ্গে নাম জড়াল বলিউডের। এবার একতা কাপুরের ‘গান্দি বাত’ সিরিজের অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠকে পর্নগ্রাফি ব্যবসা চালানোর অভিযোগে আজ রবিবার মুম্বাই পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

জানা গেছে, উঠতি মডেল ও অভিনেত্রীদের দিয়ে অশ্লীল শুটিং এবং সেগুলো নিজের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। আজ গহনাকে গ্রেফতারের পর বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, এএলটি বালাজির বিতর্কিত ওয়েব সিরিজ ‘গান্দি বাত’-এ অভিনয় সূত্রেই জনপ্রিয় হন গহনা বশিষ্ঠ। ৩২ বছরের এই অভিনেত্রী ৮০টিরও বেশি বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। এর আগে মিস এশিয়া বিকিনি অ্যাওয়ার্ডও জেতেন তিনি।

মুম্বাই পুলিশ বলছে, বহুদিন ধরেই রমরমিয়ে চলছিল এই চক্র। যে ওয়েবসাইটি গহনা চালাতেন, সেটি আদ্যোপান্ত অশ্লীল ছবি-ভিডিওতে ভর্তি। অভিযোগ, অভিনেত্রী এপর্যন্ত মোট ৮৭টি পর্ন ভিডিও আপলোড করেছেন।

ইতিহাস গড়ে ক্লাব বিশ্বকাপের ফাইনালে মেক্সিকোর টাইগ্রেস

ইতিহাস গড়ল মেক্সিকোর ফুটবল ক্লাব টাইগ্রেস। দেশটির ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে ক্লাব বিশ্বকাপ কাপ ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ক্লাবটি।

কোপা লিবার্তোদোরেস চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের পালমেইরাসকে ১-০ গোলে হারিয়ে চমকে দিয়েছে টাইগ্রেস।

গোলবিহীনভাবে প্রথমার্ধ শেষ হলেও দ্বিতীয়ার্ধে পেনাল্টি থেকে এগিয়ে যায় টাইগ্রেস। ৫৪তম মিনিটে সফল স্পট-কিকে পালমেইরাসের জাল খুঁজে নেন আন্দ্রে-পিয়েরে গিগনাক। টুর্নামেন্টে ৩৫ বছর বয়সী ফরাসি স্ট্রাইকারের এটি তৃতীয় গোল। এই ব্যবধান ধরে রেখে ম্যাচে শেষে ফাইনালের টিকেট কাটার আনন্দে মেতে ওঠে মেক্সিকান ক্লাবটি।

ফাইনালে টাইগ্রেস প্রতিপক্ষ হিসেবে পেতে পারে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী বায়ার্ন মিউনিখ বা মিশরের আল আহলি’কে।

উত্তর আমেরিকা, মধ্য আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান ফেডারেশনের প্রতিনিধিত্ব করা কনকাকাফের প্রথম দল হিসেবে ক্লাব বিশ্বকাপ কাপের ফাইনালে উঠেছে টাইগ্রেস।

নেটফ্লিক্সে বাংলাদেশ ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে ‘ডুব’

নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’। নেটফ্লিক্সে বাংলাদেশ ট্রেন্ডিংয়ে বর্তমানে শীর্ষে আছে বহুল আলোচিত এ সিনেমাটি। ৫ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) থেকে বিশ্বের জনপ্রিয় স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্সে দেখা যাচ্ছে ‘ডুব’।

ট্রেন্ডিং এর শীর্ষে থাকা প্রসঙ্গে নির্মাতা ফারুকী ফেসবুকে লিখেছেন, “ব্যস্ত দিন গেছে, সবকিছু থেকে কিছুটা বিচ্ছিন্ন ছিলাম। ধন্যবাদ এক ভাইকে, যিনি আমাকে এই তথ্যটা জানিয়েছেন। বাংলাদেশকে ধন্যবাদ ‘ডুব’কে নেটফ্লিক্সের সর্বাধিক দেখা কন্টেন্ট করার জন্য। প্রতিটি সিনেমাই ভালোবাসার বিনিময়ে তৈরি হয়। কিছু সিনেমা তার চাইতেও বেশি। এই সিনেমাটি অনেকগুলো কারণে আমার হৃদয়ের খুব কাছের! কোনো একদিন হয়তো সেই কারণটি লিখতে পারবো! সবাইকে ভালোবাসা!”

তিনি আরও লিখেছেন, “যেই মেসেজগুলো পাচ্ছি তাতে বুঝতে পারছি সিনেমাটি বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, ভারত এবং আরও কিছু দেশে দেখা যাচ্ছে। যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপের আরও কিছু দেশ থেকে শতাধিক প্রশ্ন পেয়েছি। উত্তর হলো, সম্ভবত সিনেমাটি এখনও ইউরোপে দেখা যাচ্ছে না। আশা করি, দ্রুতই ইউরোপসহও অন্যান্য দেশগুলোতেও দেখা যাবে। ধন্যবাদ।”

২০১৭ সালের অক্টোবরে ভারত ও বাংলাদেশের মোট ৭৩টি হলে মুক্তি পায় মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’। বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে ছবিটি প্রযোজনা করেছে এসকে মুভিজ ও বলিউডের প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খান। ছবিতে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এ ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, পার্ণো মিত্র, রোকেয়া প্রাচী, নাদের চৌধুরী প্রমুখ।

নালিতাবাড়ীতে পালপুরোহিতের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার বারমারী সাধু লিও’র খ্রীষ্টধর্ম পল্লীতে খ্রিষ্টান ধর্মের পালপুরোহিতগণের যোগদান ও বিদায় উপলক্ষে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

রবিবার ট্রাইবাল চেয়ারম্যান মি. লুইস নেংমিঞ্জার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিদায়ী পালপুরোহিত রেভারেন্ড ফাদার মনিন্দ্র মাইকেল চিরান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নব নিযুক্ত রেভারেন্ড ফাদার তরুণ বনোয়ারী ও জীবন উইচিন্ডাল। অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন সিস্টার রোজি হাদিমা, শিক্ষক প্রদীপ প্রু, জনমাংসাং, লিটন হাজং প্রমুখ।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বারমারী খ্রীষ্টধর্মপল্লীর ভক্তগণ, সুধী ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহন করেন। এসময় কর্মকর্তারা বিদায়ী পালপুরোহিত রেভারেন্ড ফাদার মনিন্দ্র মাইকেল চিরান ও নব নিযুক্ত রেভারেন্ড ফাদার তরুণ বনোয়ারী এবং জীবন উইচিন্ডালকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। সবশেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

টিকা নেয়ার অভিনয় করে এমপি নাজমার ফটোসেশন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও সংরক্ষিত ৩১২ আসনের সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম টিকা নেওয়ার অভিনয় করে ফটোসেশন করে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন। আজ রবিবার দুপুর সোয়া ১২টার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন নার্স এমপি শিউলি আজাদকে টিকা দিচ্ছেন, এমন ভান করে আছেন তিনি। কিন্তু আসলে তিনি টিকা নেননি। ছবিটিতে এমপি ও নার্স ছাড়াও আরও অন্তত ১০ জনকে দেখা যাচ্ছে। এদের মধ্যে আছেন সরাইল উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারজানা প্রিয়াঙ্কা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এমপি শিউলি আজাদ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিতে জাতীয় সংসদ ভবনে নিবন্ধন করেছেন। তিনি আজ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকাদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি টিকা নেইনি।’

ফটোসেশনের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটা আনঅফিশিয়ালি। উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগমকে অভয় দেয়ার জন্য ও নার্সকে বোঝানোর জন্য টিকা নেওয়ার ঢং করেছি।’ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নোমান মিয়া এ ব্যাপারে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘রবিবার দুপুরে সাংসদ উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম সরাইলে টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন। পরে আমি শুনেছি তিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি রুমে টিকা নেওয়ার একটি ফটোসেশন করেছেন।’

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরিফুল হক মৃদুল, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারজানা প্রিয়াংকা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নোমান মিয়া, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবু হানিফ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম, সদর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার।

বিডি-প্রতিদিন

গভীর রাতে ৯৯৯-এ ফোন, ইনহেলার নিয়ে হাজির পুলিশ

রাজধানীর নীলক্ষেতের বাসায় গভীর রাতে অসুস্থ হয়ে পড়েন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। দেখা দেয় শ্বাসকষ্ট। পাশে থাকা তার সহপাঠী রাত তিনটার দিকে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। কল পেয়ে ইনহেলার কিনে পৌঁছে দেয় শাহবাগ থানা পুলিশ।

রবিবার বিকালে জাতীয় জরুরি সেবা থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই শিক্ষার্থী ৯৯৯-কে জানান, করোনার কারণে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় তারা কয়েকজন ছাত্রী দক্ষিণ নীলক্ষেত বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকার একটি ভবনের ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকেন। সেখানে তার এক সহপাঠী ছাত্রী ঠান্ডা ও এলার্জিজনিত সমস্যার কারণে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তার সহপাঠীর শ্বাসকষ্ট হচ্ছে, দ্রুত তাকে নেবুলাইজার বা ইনহেলার দেয়া দরকার। কিন্তু সেগুলো কিনে আনার মতো কোনো পুরুষ সেখানে নেই।

ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্রী জানান, গভীর রাতে তিনি নিজে বের হয়ে ওষুধ কিনে আনার সাহস করতে পারছেন না। কারণ গভীর রাতে ঢাকা মেডিকেল এলাকা ছাড়া অন্য এলাকায় ওষুধের দোকানগুলো বন্ধ থাকতে পারে। এ সময় তিনি জাতীয় জরুরি সেবা সেলের কর্মকর্তাদের কাছে অনুরোধ জানান পুলিশের মাধ্যমে তার সহপাঠীর জন্য ইনহেলার কিনে পাঠানোর জন্য।

পরে ৯৯৯ থেকে বিষয়টি শাহবাগ থানায় জানানো হয়। সংবাদ পেয়ে শাহবাগ থানার একটি দল ঢাকা মেডিকেল কলেজ এলাকার ওষুধের দোকান থেকে অসুস্থ ছাত্রীর জন্য ইনহেলার কিনে নিয়ে যান।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম জানান, ওষুধ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এলাকা গেলেও তিনি টহল গাড়িটি নিয়ে প্রবেশ করতে পারেননি। পরে তিনি প্রায় আধা কিলোমিটার হেঁটে অসুস্থ ছাত্রীর বাসা খুঁজে বের করে ইনহেলার পৌঁছে দেন।

পরবর্তী সময়ে জাতীয় জরুরি সেবা সেল থেকে পুলিশের সহায়তা চাওয়া শিক্ষার্থীর সঙ্গে যোগাযোগ করে অসুস্থ ছাত্রীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে খোঁজ নেয়া হয়।

তিনি জানান, তার বান্ধবী ইনহেলার নেয়ার পর সুস্থ আছেন। এ সময় বিপদের মুহূর্তে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ ও শাহবাগ থানা পুলিশ সহযোগিতা করায় সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আইসিটি’র বৈশ্বিক সূচকে অগ্রগতি বাংলাদেশের

বাংলাদেশ করোনা মহামারিকালেও আইসিটি খাতে অগ্রগতির ধারা বজায় রেখেছে। ব্রডব্যান্ড, ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি) এবং আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) ক্ষেত্রে আগের বছরের তুলনায় গত বছর এগিয়েছে বাংলাদেশ। ফলে বাংলাদেশের খাতায় সার্বিকভাবে ২০২০ সালে এ খাতে আরও তিন পয়েন্ট যোগ হয়েছে।

এ চিত্র উঠে এসেছে বৈশ্বিক প্রযুক্তি জায়ান্ট হুয়াওয়ের ‘গ্লোবাল কানেক্টিভিটি ইনডেক্স ২০২০’ শীর্ষক প্রতিবেদনে। সম্প্রতি ৭৯টি দেশের ডিজিটাল ক্ষেত্রে অবকাঠামো ও সক্ষমতার ওপর ভিত্তি করে এটি প্রকাশ করা হয়। হুয়াওয়ে ২০১৫ সাল থেকে চার ক্ষেত্রের ৪০টি সূচকের ভিত্তিতে এই জিসিআই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

২০১৫ থেকে এই পর্যন্ত ‘গ্লোবাল কানেক্টিভিটি ইনডেক্স’ বা বৈশ্বিক সূচকে আট পয়েন্ট এগিয়েছে বাংলাদেশ বলে জিসিআই ২০২০ প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। আর সেই ৪০টি সূচকের মধ্যে গত বছরের তুলনায় ২০২০ সালে আন্তর্জাতিক ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ, ৪জি সংযোগ বেড়েছে। পাশাপাশি এআই এবং আইওটি ক্ষেত্রে সম্ভাবনার হার বেড়েছে।