ভুমধ্যসাগরে উসকানি বন্ধে তুরস্ককে জার্মানির আহ্বান

তুরস্ক নয়, গ্রিস ও সাইপ্রাসের পাশে দাঁড়ালো জার্মানি। জার্মান বিদেশমন্ত্রী হাইকো মাস বলেছেন, গ্রিসের দ্বীপের কাছে তুরস্কের তেলের খোঁজ বন্ধ করতে হবে।

তুরস্ককে সতর্ক করে দিলেন জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস। তিনি বলেছেন, তুরস্ক যেন তেল ও গ্যাস অনুসন্ধান বিতর্কে উসকানি না দেয়। মাস বলেছেন, তুরস্ক সরকার বারবার বলছে, তারা আলোচনা চায়। তা হলে তারা উসকানি দেয়া বন্ধ করুক।

গ্রিস ও সাইপ্রাস সফরের আগে মাস বলেছেন, ”আমরা তুরস্কের কাছে আবেদন জানাচ্ছি, তারা যেন একতরফা ব্যবস্থা নিয়ে গ্রিসের সঙ্গে আলোচনা বন্ধ না করে।” তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, ”জার্মানি পুরোপুরি গ্রিস ও সাইপ্রাসের সঙ্গে আছে, তুরস্কের সঙ্গে নয়।”

মাস সে জন্যই গ্রিস ও সাইপ্রাস যাচ্ছেন, কিন্তু তুরস্কে যাচ্ছেন না। মাস বলেছেন, ”আমি এই বিরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই সাইপ্রাস ও গ্রিস যাচ্ছি। জার্মানি মনে করে, আলোচনার পরিস্থিতি তৈরির দায় তুরস্কের।”

জার্মানির চ্যান্সেলার ম্যার্কেলের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তুরস্ক যে আবার অনুসন্ধানকারী জাহাজ পাঠিয়েছে, তা খুবই অবিবেচক সিদ্ধান্ত। উত্তেজনা কমাবার যে চেষ্টা চলছে, তা এর ফলে ধাক্কা খাবে।

হিরো আলমের ছবি দিয়েই খুলছে সিনেমা হল (ট্রেইলার)

করোনার কারণে গত ১৮ মার্চ বন্ধ হয়ে যায় দেশের সকল সিনেমা হল। দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার পর অবশেষে আগামীকাল থেকে সিনেমা হল খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আর প্রথম ছবি হিসেবে মুক্তি পাচ্ছে হিরো আলম প্রযোজিত ও অভিনীত ছবি ‘সাহসী হিরো আলম’। দেশের প্রায় অর্ধশত হলে এটি মুক্তি পাচ্ছে বলে জানান হিরো আলম।

দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে তিনি বলেন, ‘আনন্দ, চিত্রা মহল, জিঞ্জিরাসহ দেশের অর্ধশতাধিক সিনেমা হলে “সাহসী হিরো আলম” মুক্তি পাবে। করোনাকালীন এই সময়ে অন্যরা ছবি মুক্তি দিতে সাহস পাচ্ছে না। আমি হিরো আলম সিনেমার এই ক্রান্তিকালে ছবি মুক্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

হিরো আলম আরও বলেন, ‘এই সময়ে অনেকেই ছবি মুক্তি দিতে ভয় পাচ্ছে। আমাকেও অনেকে বারণ করেছিল, এখন ছবি মুক্তি না দিতে। কিন্তু আমার বিশ্বাস আমার ভক্ত-দর্শকরা ছবিটি দেখতে হলে আসবেই। আর সেই আশার জায়গা থেকেই ছবিটি মুক্তি দিচ্ছি। আশা করি, ছবিটি দেখে কেউ নিরাশ হবেন না।’

ছবি গল্প প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গল্পে আমি সাহসী, কোনো কিছুতেই ভয় পাই না। তাই ছবির নামও রেখেছি সাহসী হিরো আলম।’

এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনজন নায়িকা। এরা হলেন- সাকিরা মৌ, রাবিনা বৃষ্টি ও নুসরাত জাহান। ছবিটি পরিচালনা করেছেন এ আর মুকুল নেত্রবাদী।

মিরপুরে শিক্ষা অধিদপ্তরের সামনে নিয়োগ প্রত্যাশীদের বিক্ষোভ

রাজধানীর মিরপুরে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সামনে তৃতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করছেন সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ বঞ্চিতরা। আজ বৃহস্পতিবার সেখানে অবস্থান নিয়েছে প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্যানেল প্রত্যাশী কমিটি-২০১৮ ও লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কয়েক হাজার চাকরি প্রত্যাশী। তবে পুলিশ সেখান থেকে তাদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা।

তাদের অভিযোগ, গতকাল বুধবার রাত থেকেই তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দিতে চেষ্টা করছে পুলিশ। আজ সকালেও পুলিশ তাদের বাধা দিচ্ছে।

আন্দোলনকারীরা জানান, প্রায় ৩১ হাজার চাকরি প্রত্যাশী, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে চাকরির অপেক্ষায় আছেন। প্রায় ২৯ হাজার পদ খালি থাকলেও নিয়োগ না দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন তারা। ওই পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের দ্রুত নিয়োগ দেওয়ার দাবিতেই বিগত কয়েকদিন যাবৎ আন্দোলন কর্মসূচি পালন করছেন সংশ্লিষ্টরা।

আজ সকালে আব্দুর রহিম নামের এক আন্দোলনকারী দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বলেন, ‘আমরা আজ ৩য় দিনেও অবস্থান নিয়েছি। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়েই যাব।’

সংগঠনের সভাপতি আব্দুল কাদের জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ অনেকবার নানাভাবে আবেদন করা হলেও কোন ফল মেলেনি। তাই বাধ্য হয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সামনে অবস্থান নিয়েছেন তারা।

তিনি আরও জানান, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করার পরও শূন্য পদে তাদের নিয়োগ না দিয়ে কর্তৃপক্ষ অমানবিক আচরণ করেছে।

প্যানেল প্রত্যাশাী কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান জানান, এই কর্মসূচি দেওয়া ছাড়া আর কোন উপায় ছিল না। তবে তারা শান্তিপূর্ণভাবেই সকল কর্মসূচি পালন করবেন বলে জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মিরপুর মডেল থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনিসুর রহমান দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বলেন, ‘মিরপুরে শিক্ষা অধিদপ্তরের সামনে নিয়োগ প্রত্যাশীরা আজও বিক্ষোভ করেছেন। সেখানে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাসহ একাধিক টিম রয়েছে।’

নুর-রাশেদকে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা করে নতুন কমিটি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর ও ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খানকে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা করে ‘বাংলাদশে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ এর নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মলেনের মাধ্যমে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

একই সংগঠনের ২২ সদস্যের এ নতুন আহ্বায়ক কমিটি ‘বাংলাদেশে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ নামেই কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর করা ধর্ষণ মামলায় নুরুল হক নুরসহ ছয় জনকে আসামি করা হয়েছে। ওই মামলাসহ তিনটি মামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছে নুরকে।

গত ২০ সেপ্টেম্বর ঢাবির ওই শিক্ষার্থী রাজধানীর লালবাগ থানায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে প্রধান আসামি করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।  ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরসহ আরও পাঁচজনের বিরুদ্ধে ওই মামলায় অভিযোগ আনা হয়।

এছাড়া অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পরদিন কোতোয়ালি থানায় আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়। এতে পরস্পর যোগসাজশে অপহরণ, ধর্ষণ, ধর্ষণে সহযোগিতা এবং হেয় প্রতিপন্ন করতে ডিজিটাল মাধ্যমে অপপ্রচারের অভিযোগ আনা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে।

এদিকে গতকাল বুধবার নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে ‘দুশ্চরিত্রহীন’ বলায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মধ্যরাত থেকে রাজধানীতে মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

রাজধানীতে আজ বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে তিন দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। আগামী শনিবার অনুষ্ঠেয় ঢাকা-৫ আসনে উপ-নির্বাচন উপলক্ষে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ১২টা থেকে রোববার রাত ১২টা পর্যন্ত মোট তিনদিন মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ থাকবে। এ ছাড়া ঢাকা-৫ নির্বাচনী এলাকায় আগামীকাল শুক্রবার রাত ১২টা থেকে শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত ট্রাক ও পিকআপ বন্ধ থাকবে। এসব যানবাহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক বা সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্তৃপক্ষকে ক্ষমতা দিয়েছে ইসি।

 

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে, এ নিষেধাজ্ঞা রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমতি সাপেক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী/তাদের নির্বাচনী এজেন্ট, দেশি/বিদেশি পর্যবেক্ষকদের ক্ষেত্রে শিথিলযোগ্য।

‌এ ছাড়া নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত দেশি/বিদেশি সাংবাদিক, নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, নির্বাচনের বৈধ পরিদর্শক এবং কতিপয় জরুরি কাজ যেমন- অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগ কার্যক্রমে ব্যবহারের জন্য উল্লিখিত যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে ওই নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

জাতীয় মহাসড়ক, বন্দর ও জরুরি পণ্য সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরি প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এরূপ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে পারবেন বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জে মীমাংসার নামে ধর্ষিতাকে আবারও গণধর্ষণ, গ্রেফতার ১

 

নারায়ণগঞ্জের নৈকাহন বাজারের একটি মাছের দোকানের ভেতর ধর্ষণের শিকার হন দুই সন্তানের জননী এক বিধবা নারী। পরে বিষয়টি মীমাংসা করার নামে আরও দুই দফা গণধর্ষণ করেছে ৫ জন ব্যক্তি।

এ ঘটনায় ওই নারী আলী আকবর নামে এক ব্যক্তিকে প্রধান আসামি করে মোট ৬ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছেন।  

এর প্রেক্ষিতে পুলিশ আজ বৃহস্পতিবার সকালে অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি আলী আকবরকে গ্রেফতার করেছে। তিনি একই এলাকার মৃত বছির উদ্দিনের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৭ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার নৈকাহন বাজারের আনিসের মার্কেটে ওষুধ কিনতে জান দুই সন্তানের জননী ওই বিধবা নারী। এ সময় আলী আকবর তাকে ডাক দিয়ে বাজারের মাছের দোকানে নিয়ে যায়। পরে দোকানের সাটার বন্ধ করে ধর্ষণ করে।

ওই নারী দোকান থেকে বের হতেই এলাকার মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে মোস্তফা (৫৫) ও আনারুল (৪০) লিটন (৩২) ঘটনা জানতে চান। তারপর আপোষ করে দেয়ার কথা বলে লিটনের পুকুর পাড়ে নিয়ে যায় ওই নারীকে। একই রাত সাড়ে ৮টায় তিনজন পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

পরবর্তীতে লিটন ফোন করে শাহীন (৩২) ও তরিকুল (৩৪) ডেকে আনেন। তারা ওই নারীকে জোর করে রাত সাড়ে ১০টায় একই এলাকার আলী হোসেনের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদে নিয়ে ধর্ষণ করে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিধবা নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রধান আসামি আলী আকবরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

ধর্ষণ: অধ্যাদেশ জারির পর দেশে প্রথম মৃত্যুদণ্ড

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে গত মঙ্গলবার অধ্যাদেশ জারি করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

এর আগের দিন সোমবার এ সংক্রান্ত আইন ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০’ এর খসড়া অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। 

দেশব্যাপী ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে এই সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

অধ্যাদেশ জারির পর ধর্ষণ মামলায় প্রথম মৃত্যুদণ্ডের আদেশ আসল টাঙ্গাইল থেকে। জেলার ভুঞাপুরে এক মাদ্রাসাছাত্রীকে গণধর্ষণ মামলায় বৃহস্পতিবার ৫ আসামির মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল।

বিডি প্রতিদিন

ধর্ম অবমাননা মামলায় সুজনের ৭ বছর কারাদণ্ড

রাসুল (সা.) ও ইসলাম ধর্ম নিয়ে ফেসবুকে অবমাননাকর পোস্ট দেওয়ায় সুজন দে নামে এক ব্যক্তিকে সাত বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামস জগলুল হোসেন এ রায় দেন।

একইসঙ্গে আসামিকে এক হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। সুজন দে পেশায় একজন দর্জি। রায় ঘোষণার সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।  

ঘটনার বিবরণীতে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২০ মে আসামি ‘জানা-অজানা’ নামে তার ফেসবুক আইডি থেকে মহান আল্লাহ, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও ইসলাম ধর্মকে কটুক্তি করে পোস্ট দেন। এ ঘটনায় ‘ধর্মানুভূতিতে আঘাতের’ অভিযোগ এনে রাঙামাটি জেলার লংগদু থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক সালাউদ্দিন সেলিম এ মামলা দায়ের করেন।

এরপর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০১৭ সালের ৩০ আগস্ট সুজন দে’র বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ওই বছরের ২৬ অক্টোবর আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলায় বিচার চলাকালে বিভিন্ন সময়ে ৭ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন আদালত।

বিডি-প্রতিদিন

এমপি নিক্সনের বিচার চান প্রশাসনের কর্মকর্তারা

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসককে হুমকি এবং ইউএনওর ফোনে এসি ল্যান্ডকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজের অভিযোগে আলোচিত স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য (এমপি) মুজিবর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সনের বিচার চেয়েছে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন (বিএএসএ)। বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের এই সংগঠনের সভাপতি ও স্থানীয় সরকার বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এবং মহাসচিব ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউসুফ হারুনের স্বাক্ষর করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ বুধবার এ দাবি জানানো হয়েছে।

বিএএসএ’র বিজ্ঞপ্তিতে ঘটনার বিবরণ তুলে বলা হয়, ডিসিকে অত্যন্ত মানহানিকরভাবে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও হুমকি এবং অনুসারীদের দিয়ে বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ স্লোগান দিতে উৎসাহিত করা একজন সাংসদ অথবা একজন সুস্থ মানসিকতাসম্পন্ন ভদ্রলোকের পক্ষে অকল্পনীয়। এ ছাড়া ইউএনও একজন নারী কর্মকর্তা হওয়া সত্ত্বেও একজন সাংসদ যে ধরনের অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ শব্দ ব্যবহার করেছেন, তা বাঙালি সংস্কৃতি ও মূল্যবোধের প্রতি চরম অবমাননাকর। অ্যাসোসিয়েশন এই মানহানিকর ও অশোভন উক্তির তীব্র নিন্দা জানায় এবং তা যথাযথ অনুসন্ধান করে দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে সঠিক বিচারের দাবি জানায়।

এর আগে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) অতুল সরকার ওই ঘটনা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে জানালে সেটি নির্বাচন কমিশনে পাঠায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এ অবস্থায় ফরিদপুর-৪ আসনের সাংসদ মুজিবর রহমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা জানিয়েছেন আজ বুধবার বা আগামীকাল বৃহস্পতিবারের মধ্যে এ মামলা করা হবে।

 

প্রসঙ্গত, চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে গত শনিবার ফরিদপুরের ডিসিকে ‘দাঁতভাঙা জবাব’ দেওয়ার হুমকি দেন বলে অভিযোগ ওঠে স্বতন্ত্র এমপি মুজিবর রহমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে। একই দিন চরভদ্রাসনের ইউএনওর ফোনে কল করে তিনি গালিগালাজ করেছেন ভাঙা উপজেলার সহকারী কমিশনারকে (ভূমি)। এই দুই ঘটনার ভিডিও চিত্র ও অডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়েছে।

অবশ্য গালিগালাজের যে অডিও ছড়িয়েছে, সেটি বানোয়াট বলে দাবি করেছেন এমপি নিক্সন। গতকাল মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে এমপি দাবি করেন, তার বক্তব্যকে ‘সুপার এডিট’ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, এমন গালিগালাজ তিনি করেননি।

স্ত্রীর যৌনাঙ্গে দা দিয়ে গরম ছ্যাঁকা!

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীর যৌনাঙ্গে দা দিয়ে গরম ছ্যাঁকা দেওয়াসহ শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্য পনু মিয়াকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বরগুনার সদর উপজেলার আয়লা-পাতাকাটা ইউনিয়নের পাকুরগাছিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূর নাম মার্জিয়া আক্তার ছবির (৪০)। তিনি দুই সন্তানের মা।

ভুক্তভোগী ওই নারীর বাবা মুক্তিযোদ্ধা সামসুউদ্দিন সানু দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘বিয়ের পর থেকে জামাতা পনু যৌতুকের দাবিতে আমার মেয়েকে শারীরিক নির্যাতন করে আসছে। এ পর্যন্ত ৪-৫ লাখ টাকা যৌতুক নিয়েছে সে। আরও ২ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে প্রতিদিন নির্যাতন করত সে। মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে পনু মেম্বর দা গরম করে আমার মেয়ের যৌনাঙ্গে ছ্যাঁকা দেওয়াসহ শারীরিকভাবে নির্যাতন করে উঠানে ফেলে রাখে। তার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এসে ছবিকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।’

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘গৃহবধূ মার্জিয়াকে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামি পনু মেম্বরকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’