রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সংঘর্ষে নিহত ২

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- ইমাম শরীফ (৩৩) ও শামসুল আলম (৪৫)।

এ ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের অভ্যন্তরে থাকা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আর রবিবার (৪ অক্টোবর) ভোরে এই সংঘর্ষ হয় বলে জানা গেছে।

কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান হাফেজ জালাল আহমদ জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে তাদের দুইটি গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলছিল অনেকদিন থেকে। এর আগেও দুই গ্রুপের মধ্যে ছোট-বড় বেশ কয়েকবার ঘটনা হয়েছে।

কুতুপালং ক্যাম্পের আইন শৃঙ্খলার দায়িত্বে নিয়োজিত ১৪ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহাম্মদ সঞ্জুর মোরশেদ জানান, দুই গ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনায় নিহত দুইজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

মিন্নিসহ ছয় আসামির ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ছয় আসামির ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে পৌঁছেছে।

আজ রবিবার সকালে পুলিশের বিশেষ প্রহরায় রিফাত শরীফ হত্যা মামলার যাবতীয় নথিসহ ডেথরেফারেন্স নিয়ে আসেন বরগুনা কোর্টের কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর পিকু।
নিয়ম অনুযায়ী, মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের জন্য (ডেথ রেফারেন্স) মামলার যাবতীয় কার্যক্রম উচ্চ আদালতে পাঠানো হয়। রায় হাইকোর্টে আসার পর আসামিরা সাত দিনের মধ্যে আপিল আবেদন করতে পারবেন। মূলত কোনো আসামির মৃত্যুদণ্ড হলে তা কার্যকরে হাইকোর্টের অনুমোদন লাগে, যা ডেথ রেফারেন্স মামলা হিসেবে পরিচিত। তবে দণ্ডিতরা বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে জেল আপিল ও আপিলের সুযোগ পাবেন।

এর আগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর রিফাত হত্যা মামলায় মিন্নিসহ ছয় আসামির মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনকে খালাস দেন বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান।

ফাঁসির দণ্ডাদেশপ্রাপ্তরা হলেন- মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী (২৩), আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন (২১), মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত (১৯), রেজোয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয় (২২), মো. হাসান (১৯) ও আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি (১৯)।

এ ছাড়া এ মামলায় চার আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়। তারা হলেন- মো. মুসা (২২), রাফিউল ইসলাম রাব্বি (২০), মো. সাগর (১৯) ও কামরুল হাসান সায়মুন (২১)।

বিডি প্রতিদিন

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর পায়ের রগ কাটলেন স্বামী!

বরিশালে যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীর পায়ের রগ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মো. রাসেল নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর গুরুতর আহত অবস্থায় ভুক্তভোগী হ্যাপী বেগমকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মো. রাসেল বরিশালের বানারীপাড়া পৌর শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। যৌতুকের টাকা না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে আজ শনিবার সকালে বানারীপাড়া উপজেলার হাইস্কুল সংলগ্ন রাস্তায় স্ত্রীকে মারধরের পর পায়ের রগ কেটে দেন তিনি।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হ্যাপী বেগম জানান, ১০ বছর আগে বানারীপাড়া উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের হাওড়াবাড়ি এলাকার হাসান বালীর ছেলে ধান ব্যবসায়ী রাসেলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে তার বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্যে জীবনে রিমি (৯) ও রাতুল (সাড়ে ৩) নামে তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। স্বামী রাসেল তার কাছে যৌতুক বাবদ ৩ লাখ টাকা দাবি করেন। যৌতুকের দাবি মেটাতে স্বর্ণালঙ্কার বিক্রি করে ৩৬ হাজার টাকা স্বামীর হাতে তুলে দেন তিনি।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ জানান, বাকি টাকার জন্য তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন স্বামী রাসেল। শুক্রবার শারীরিক সমস্যায় চিকিৎসার কথা বললেও রাসেল যৌতুকের টাকা এনে দিতে বলেন। এ ঘটনা নিয়ে শুক্রবার রাতে দুজনের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। শনিবার সকালে হ্যাপী বেগম চিকিৎসার জন্য বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রওনা হলে রাসেল ও তার বাবা হাসান বালী হ্যাপীর পিছু নেন। বানারীপাড়া পৌর শহরের হাইস্কুল সংলগ্ন এলাকায় রিকশার গতিরোধ করে হ্যাপীকে টেনে-হিঁচড়ে নামিয়ে বেদম মারধর করেন রাসেল। বাসা থেকে বের হওয়ার শাস্তি হিসেবে রাসেল ধারালো চাকু দিয়ে তার বাম পায়ের রগ কেটে ফেলেন। এ সময় হ্যাপী ও তার শিশুর আর্তচিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে এলে তারা দৌঁড়ে পালিয়ে যান। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

তবে অভিযুক্ত মো. রাসেলের অভিযোগ, যৌতুকের টাকার জন্য স্ত্রীর ওপর হামলা চালানো হয়নি। তার স্ত্রী একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে পরকীয়ায় আসক্ত। শনিবার সকালে হ্যাপী ব্যাগ গুছিয়ে অন্যত্র চলে যেতে থাকলে তার স্ত্রীর পায়ের রগ কেটে দেন তিনি।

বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘স্ত্রীর পায়ের রগ কেটে দেওয়ার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে হামলাকারী পালিয়ে যাওয়ায় তাকে ধরা যায়নি। আহত হ্যাপীকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের নতুন টোকেন নিতে টিকিট প্রত্যাশীদের ভিড়

কয়েকদিন বন্ধের পর আবারও দেশে আটকেপড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের নতুন টোকেন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সাউদিয়া অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, আজ রোববার থেকে এই কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ কারণে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে সাউদিয়া এয়ারলাইন্স অফিসের সামনে গতকাল শনিবার রাত থেকেই জড়ো হয়েছেন টোকেন প্রত্যাশীরা।

এসব সৌদি প্রবাসীদের বেশির ভাগই প্রায় এক সপ্তাহ ধরে টিকিটের প্রত্যাশায় লাইনে দাঁড়াচ্ছেন। অনেকেরই ভিসার মেয়াদ আছে আর অল্প ক’দিন। টিকিট প্রত্যাশীরা জানান, দ্রুত টিকেট পেলে ফিরতে পারবেন সৌদির কর্মস্থলে।

কেউ কেউ আবার অল্প কয়েকদিনের জন্য আকামার মেয়াদ বাড়িয়েছেন। তাই দ্রুত যেতে হবে সৌদির কর্মস্থলে। এজন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকিট দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন টিকিট প্রত্যাশীরা।

এর আগে গতকাল শনিবার সাউদিয়া অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের জেনারেল ম্যানেজার জি এম জাহিদ হোসেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, রোববার থেকে শুধু যাদের কাছে রিটার্ন টিকিট রয়েছে তাদেরকে নতুন টোকেন দেওয়া হবে। আর নতুন টোকেনধারীরাই যাতে এয়ারলাইন্স অফিসে আসেন সে ব্যাপারে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে সর্বশেষ ১ অক্টোবর ৩০০১ থেকে ৩৩০০ টোকেনধারীদের টিকেট দেয় সাউদিয়া। এরপর ২ তারিখ তারা কোনো টোকেন ইস্যু করেনি।

এদিকে, দেশে ফিরে আটকেপড়া প্রবাসীদের ফেরাতে ইতোমধ্যে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সাউদিয়া ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। ফ্লাইট সংখ্যা বাড়িয়েছে উভয় এয়ারলাইনস। এ ছাড়াও বিমান প্রবাসীদের ফেরাতে সৌদির তিন শহরে মোট ১২টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

কক্সবাজারের পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা

টেকনাফ ও উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন সংরক্ষিত গহিন পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে বিজিবি ও র‌্যাব। দুই কারখানা থেকে ৬টি আগ্নেয়াস্ত্র, গোলাবারুদ, ১২ রাউন্ড গুলি ও অস্ত্র তৈরির বিপুল সরঞ্জামসহ ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। বিজিবি সূত্র জানায়, টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের উলুমারী গ্রাম সংলগ্ন পাহাড় থেকে ৬টি একনলা বন্দুক, ১০ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ৯ রাউন্ড গুলির খোসা, চার রাউন্ড রাইফেলের অ্যামুনেশন,

চার রাউন্ড এলএমজির অ্যামুনেশন, চার রাউন্ড প্যারাসুট ফ্লেয়ার, একটি পুলিশ বেল্ট ও একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। গত শুক্রবার রাত থেকে গতকাল ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ ৪ জনকে আটক করা হয়। তারা হচ্ছে উলুমারী গ্রামের নুরুল আমিন, আনোয়ার হোসেন, জাফর আলম ও রঙ্গিখালী গ্রামের নজির আহমেদ। তারা ডাকাত দলের সদস্য বলে দাবি বিজিবির।

টেকনাফে ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান জানান, উলুমারী গ্রামের নুরুল আমিনের বাড়িসহ ৪টি বাড়িতে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্যরা আগ্নেয়াস্ত্রসহ অবস্থান করে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এমন খবরের ভিত্তিতে বিজিবির একটি দল শুক্রবার রাত থেকে গতকাল ভোর পর্যন্ত সেই গ্রামে অভিযান চালায় এবং বাড়িগুলো চারদিক থেকে ঘেরাও করে ফেলে। বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে জাফর আলমের বসতঘরসহ আরও দুটি বসতঘর থেকে সাত ডাকাত পালিয়ে যায়। তবে বিজিবির টহল দল নুরুল আমিনের বাড়ি থেকে ৪ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরে বসতবাড়ি তল্লাশি করে অস্ত্রগুলো উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের গহিন পাহাড় থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও ২ রাউন্ড গুলি, কিছু সরঞ্জামসহ দুই জনকে আটক করে র‌্যাব। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় উক্ত ইউনিয়নের মধুরছড়া পাহাড়ে এ অভিযান চালানো হয় বলে জানান র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার ক্যাম্পের উপ-অধিনায়ক মেজর মেহেদী হাসান। আটককৃতরা হলেন মহেশখালী উপজেলার বাসিন্দা আবু মজিদ ওরফে কানা মজিদ ও রবি আলম।

মেজর মেহেদী বলেন, শুক্রবার বিকালে পালংখালীর রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন সংরক্ষিত গহিন পাহাড়ে অস্ত্র ব্যবসায়ীরা অবস্থান করছিল। এমন খবরের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল অভিযান চালায়। এক পর্যায়ে মধুরছড়া নামের একটি পাহাড় থেকে ২ জনকে আটক করা হয়। পরে তাদের অবস্থান নেওয়া একটি কুঁড়েঘর থেকে দেশে তৈরি ২টি বন্দুক, ২টি গুলি ও কিছু অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। সূত্র: আমাদের সময়

সত্য কথা বলুন, শাহরুখকে তার সহ-অভিনেত্রী

২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর ১৫১ তম জন্মদিনে, তাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে টুইট করেছিলেন শাহরুখ খান। সেই টুইটের পর কিং খানের বিষোদগার করলেন তারই সহ-অভিনেত্রী সায়নী গুপ্তা।

শাহরুখ খান টুইটে লিখেছিলেন, ‘আমরা চাইব, ভালো, খারাপ, সব সময়ই গান্ধীজির আদর্শে আমাদের সন্তানরা অনুপ্রাণিত হোক, মেনে চলুক। খারাপ জিনিস শোনা উচিত নয়, দেখা উচিত নয়, বলাও উচিত নয়। গান্ধীজির ১৫১তম জন্মবার্ষকীতে সত্যের প্রতি মূল্যবোধ বাড়ুক।’

কিং খানের এই টুইটের পরই তাকে একহাত দেন তার সহ-অভিনেত্রী সায়নী গুপ্তা। সায়নী শাহরুখের উদ্দেশ্যে লেখেন, ‘আপনি মুখ খুলুন, সত্য কথা বলুন, গান্ধীজি শিখিয়েছিলেন নিপীড়িত, শোষিত ও আমাদের দলিত ভাই-বোনদের জন্য আওয়াজ তুলতে। নিজের চোখ, কান, মুখ বুজে বসে থাকবেন না।’

সম্প্রতি হাথরস ধর্ষণকাণ্ড নিয়ে ভারতে তোলপাড়। ধর্ষকদের শাস্তি চেয়ে সরব ভারতবাসী। এমনকি আলিয়া ভাট, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, অনুশকা শর্মা, কৃতি শ্যাননসহ অনেক তারকাই হাথরস ও বলরামপুরের ঘটনায় ধিক্কার জানিয়েছেন। তবে এতকিছুর পরেও শাহরুখ খান একেবারেই চুপ। শুধু তাই নয়, সুশান্তের মৃত্যু থেকে মাদককাণ্ড কোনোকিছু নিয়েই মুখ খুলতে দেখা যায়নি কিং খানকে। আর তাতেই বিরক্ত সায়নী কিং খানকে একহাত নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৬-র ‘ফ্যান’ ছবিতে শাহরুখের সঙ্গে কাজ করেন সায়নী গুপ্তা। বি-টাউনে কিং খানের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাধারণত কাউকে দেখা যায় না। তবে সায়নী উল্টোটাই করলেন। যদিও শাহরুখ এখনও সায়নীর মন্তব্যের কোনও জবাব দেননি।

বিডি প্রতিদিন

রাজধানীতে শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার ১

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে ৮ বছরের এক শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী শিশুটির পরিবার। শনিবার রাতে শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত শাহজালালকে (৪০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, শিশুটির মা নিজে বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানে আলম মুন্সি জানান, এই ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত শাহজালালকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শিশুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন

রাজধানীতে এক ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যা

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে এক ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ওই ব্যক্তির নাম শিরু মিয়া (৪৫)। শনিবার রাতে মোহাম্মদপুরের একতা হাউসিংয়ের ৮ নম্বর রোডে এ ঘটনা ঘটে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনের অতিরিক্ত কমিশনার মৃত্যুঞ্জয় দে সজল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, প্রাথমিক তদন্তে আমরা নিহতের নাম শিরু মিয়া (৪৫) বলে জেনেছি। তবে কি কারণে বা কারা এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে সেটি এখনই বলা সম্ভব হবে না। আমরা তদন্ত করছি।

বিডি প্রতিদিন

মহাকাশে নতুন টয়লেট পাঠাচ্ছে নাসা

মহাকাশে শূন্য-অভিকর্ষের (জিরো-গ্র্যাভিটি) নতুন টয়লেট পাঠাচ্ছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।

টাইটানিয়াম স্পেস টয়লেটটি আরও দূরবর্তী অঞ্চলে মিশনে সাহায্য করবে। শূন্য অভিকর্ষ অঞ্চলে শরীরের বর্জ্য নিঃসরণের জন্য এখানে ব্যবহার করা হচ্ছে ভ্যাকুয়াম সিস্টেম। গোপনীয়তা রক্ষায় পৃথিবীর পাবলিক টয়লেটের মতোই কিউবিকলের মধ্যে এটি থাকবে। এর ওজন ৪৫ কেজি, উচ্চতায় ২৮ ইঞ্চি। বর্তমান টয়লেটের চেয়ে ৬৫ ভাগ ছোট ও ৪০ ভাগ হালকা।

বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৯৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই টয়লেটটি ‘ভ্যাকুয়াম সিস্টেম’ বিশেষভাবে নকশা করা হয়েছে। যাতে নারী নভোচারীরা আগের চেয়ে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। গত বৃহস্পতিবার উৎক্ষেপণের তিন মিনিট আগে কারিগরি ত্রুটির কারণে টয়লেটটি মহাকাশ স্টেশনে পাঠানোর মিশন স্থগিত করা হয়। তবে প্রকৌশলীরা যদি ত্রুটিগুলো সারাতে পারেন তবে আবারও চেষ্টা চলবে।

নাসার প্রজেক্ট ম্যানেজার মেলিসা ম্যাককিনলে জানান, অনেকটা সময় নিয়ে ইউনিভার্সেল ওয়াস্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ইউডব্লিউএমএস) টয়লেটটির নকশা করা হয়েছে। কমোড সিট ও ইউরিন ফ্যানেল আগের তুলনায় পরিমার্জিত। নারী নভোচারীরা আরও স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন।

বিডি-প্রতিদিন

৯ দফা দাবিতে ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

১২ অক্টোবর থেকে সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ। গতকাল শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামে একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত সমন্বয় সভা থেকে সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনসহ ৯ দফা দাবিতে এ ধর্মঘটের ডাক দেয় সংগঠনটি।

বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটি সভাটি আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির আহ্বায়ক মো. আবদুল মান্নান। সভায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন।
ওসমান আলী বলেন, ন্যায্য দাবি আদায়ের জন্য এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের স্বার্থের কথা বিবেচনা না করে সরকার সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ বাস্তবায়ন করেছে। ফলে সারা দেশে পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য চলছে। ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এ আইন সংশোধনসহ পরিবহনে নৈরাজ্য ঠেকাতে ৯ দফা দাবি দেওয়া হয়েছে। দাবি আদায়ের অংশ হিসেবে ১২ ও ১৩ অক্টোবর পণ্য পরিবহন ধর্মঘট পালন করা হবে। দাবি আদায়ের জন্য ধাপে ধাপে ৯৬ ঘণ্টা এবং প্রয়োজনে অনির্দিষ্টকাল ধর্মঘট ডাকা হবে।

তিনি আরও বলেন, ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান, প্রাইমমুভার, মিনিট্রাক ও লরি না চললে দেশের বিভিন্ন বন্দর ও স্থান দিয়ে আমদানি-রপ্তানি করা সব ধরনের গার্মেন্টস, খাদ্য ও বিভিন্ন পণ্য পরিবহন বন্ধ হয়ে যাবে। এতে সরকার বেকায়দায় পড়বে। সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলার জন্য সংগঠনের উদ্দেশ্য নয়। সড়ক পরিবহন আইন সব পরিবহনের জন্য সমান হওয়া উচিত।

বিডি-প্রতিদিন