পরমাণু অস্ত্র তৈরিতে সক্ষম, তবে করব না: ইরান

ইরানের পারমাণবিক বোমা তৈরির প্রযুক্তিগত সক্ষমতা রয়েছে তবে তা করার কোনো ইচ্ছা নেই। দেশটির পারমাণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান মোহাম্মদ এসলামি সোমবার এ কথা বলেছেন বলে জানিয়েছে আধা-সরকারি ফারস বার্তা সংস্থা।

এসলামি জুলাই মাসে দেশের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা কামাল খারাজির করা মন্তব্য পুনর্ব্যক্ত করেন।

খারাজির মন্তব্যে ইঙ্গিত পাওয়া যায়, ইসলামি প্রজাতন্ত্রটির পারমাণবিক অস্ত্রের প্রতি আগ্রহ থাকতে পারে। বিষয়টি দীর্ঘকাল ধরে প্রত্যাখ্যান করে আসছে ইরান।

এসলামি বলেন, ‘খারাজি সাহেব যেমনটি উল্লেখ করেছেন, ইরানের পারমাণবিক বোমা তৈরির প্রযুক্তিগত ক্ষমতা রয়েছে। তবে এই জাতীয় কর্মসূচি আমাদের পরিকল্পনায় নেই। ’

ইরান ইতিমধ্যেই ৬০ শতাংশ পর্যন্ত বিশুদ্ধতায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করছে। এটি বিশ্বশক্তির সঙ্গে তেহরানের অচল হয়ে পড়া ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তির অধীনে নির্ধারিত ৩.৬৭ শতাংশের অনেক বেশি। পারমাণবিক বোমার জন্য উপযুক্ত হচ্ছে ৯০% পর্যন্ত সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম।

২০১৮ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক চুক্তি থেকে একতরফাভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেন। ওই চুক্তির অধীনে ইরান আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তির বিনিময়ে তার ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের কাজ বন্ধ রাখে। সূত্র: বিবিসি

পেলোসির এশিয়া সফর শুরু, তাইওয়ান অনিশ্চিত

মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি এশিয়া সফর শুরু করেছেন। গতকাল রবিবার পেলোসির কার্যালয় জানায়, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সফর করবেন তিনি। তবে আলোচিত সম্ভাব্য তাইওয়ান সফরের কথা উল্লেখ করেনি তাঁর কার্যালয়। ফলে বিষয়টি অনিশ্চিত বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

ন্যান্সি পেলোসির কার্যালয় গতকাল এক বিবৃতিতে বলেছে, এই সফরে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে পারস্পরিক নিরাপত্তা, অর্থনৈতিক অংশীদারি এবং গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থার ওপর আলোকপাত করা হবে। এ ছাড়া বাণিজ্য, জলবায়ু সংকট এবং মানবাধিকার নিয়েও আলোচনা হবে।

এর আগে এক টুইট বার্তায় ডেমোক্র্যাট দলের নেত্রী পেলোসি বলেন, ‘আমাদের সহযোগী ও বন্ধুদের দেওয়া দৃঢ় প্রতিশ্রুতি পুনর্নিশ্চিত করতে ছয় সদস্যের কংগ্রেস প্রতিনিধিদল এই অঞ্চল (ইন্দো-প্যাসিফিক) সফর করবে। ’

গত ২৫ বছরে নির্বাচিত উচ্চপদস্থ কোনো মার্কিন নেতা স্বায়ত্তশাসিত তাইওয়ান সফর করেননি। ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফর করবেন বলে সম্প্রতি জল্পনা শুরু হয়। তাইওয়ানকে নিজেদের অংশ দাবি করে থাকে চীন। পেলোসি দ্বীপটি সফর করলে ‘মারাত্মক পরিণতি’ হওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল দেশটি।

পেলোসির সফরের পরিকল্পনা নিয়ে গুঞ্জনের মধ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, মার্কিন সামরিক বাহিনী মনে করে এই মুহূর্তে পেলোসির তাইওয়ান সফর বুদ্ধিমানের কাজ হবে না।

তাইওয়ানের সঙ্গে মিত্রতা থাকলেও যুক্তরাষ্ট্র আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক রেখেছে চীনের সঙ্গেই।

চীনা নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বেশ আগে থেকেই সোচ্চার ন্যান্সি পেলোসি। বিশেষ করে দেশটির মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে সমালোচনা করে থাকেন তিনি। গত এপ্রিলেই তাইওয়ান সফরের পরিকল্পনা ছিল পেলোসির। কিন্তু করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় সে যাত্রায় সফর স্থগিত করেন তিনি। জুলাই মাসের শুরুতে তিনি বলেছিলেন, ‘তাইওয়ানকে সমর্থন করা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ’ সূত্র : বিবিসি

তিমি রক্ষায় জাহাজের গতিসীমা নিয়ে নতুন খসড়া যুক্তরাষ্ট্রের

যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে যাওয়া সব জাহাজকে অবশ্যই তাদের গতি ধীর করতে হবে। বিলুপ্তির মুখে থাকা তিমির একটি প্রজাতি রক্ষা করতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ফেডারেল সরকার। খবর গার্ডিয়ান।

দেশটির ন্যাশনাল ওশেনিক অ্যান্ড অ্যাটমসফেরিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন নতুন প্রস্তাবিত নিয়মের ভিত্তিতে এ ঘোষণা দিয়ে জানিয়েছে, উত্তর আটলান্টিকে রাইট তিমির সঙ্গে জাহাজের সংঘর্ষ রোধ করতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জাহাজের আঘাত ও মাছ ধরার গিয়ারে আটকে যাওয়াই বড় এ প্রাণীটির জন্য সর্বোচ্চ ঝুঁকির বিষয়। বর্তমানে মোট ৩৪০টিরও কম রাইট তিমি রয়েছে এবং সেটা সংখ্যায় ধীরে ধীরে আরো কমছে। তিমি বাঁচানোর জন্য এতদিন যেসব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তার মধ্যে মূল নজর দেয়া হয়েছে ফিশিং গিয়ারের ওপরেই, যেটা সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করেন পূর্ব উপকূলের লবস্টার জেলেরা। প্রস্তাবিত জাহাজের গতিসংক্রান্ত নতুন নিয়ম থেকে বোঝা যায়, সরকার চায় শিপিং শিল্প আরো বেশি দায়িত্বশীল হয়ে উঠুক।

ক্রমাগত কমতে থাকা রাইট তিমির সংখ্যাকে কিছুটা স্থিতিশীল করার জন্য এবং এ প্রজাতিকে বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা করার জন্য বিদ্যমান জাহাজের গতি নীতির পরিবর্তন দরকার ছিল। এ নতুন নিয়ম সিজনাল স্লো জোনে বিস্তৃত করা হবে, যার ফলে নাবিকদের ১০ নট (ঘণ্টায় ১১ মাইল বা ১৯ কিলোমিটার) গতি কমাতে হবে। নীতিনির্ধারকরা চান আরো বেশি বেশি জাহাজ এসব নিয়ম মেনে চলবে। নিয়মে এও উল্লেখ করা হয়েছে যে যখন মৌসুমি স্লো জোনের বাইরেও তিমি আছে বলে ধারণা করা হবে তখন যেন বাধ্যতামূলক গতি নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় সেজন্য নোয়া একটি ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করবে।

ফেডারেল কর্তৃপক্ষ বেশ কয়েক বছর ধরে তিমি সংরক্ষণ করার জন্য গতি নীতির বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণ করেছে। এর আগের শিপিং নীতিতে স্লো জোনের জোড়াতালির দিকেই বেশি মনোযোগ দিয়েছিল। সেখানেও নাবিকদের তিমির জন্য গতি ধীর করতে বলা হয়েছিল। কিছু কিছু জোন ছিল বাধ্যতামূলক আর অন্যগুলো ছিল স্বেচ্ছামূলক।

যদিও পরিবেশবাদীরা মামলা করেছেন এই অভিযোগে যে অনেক নৌকা গতি নিষেধাজ্ঞা মেনে চলছে না। তাই এই নিয়ম আরো কঠোর করার কথা বলেন তারা। পরিবেশবাদী সংগঠন ওশেনার ২০২১ সালের একটি প্রতিবেদনে বলছে, বাধ্যতামূলক অঞ্চলে নিয়ম ভঙ্গের হার ৯০ শতাংশ, এমনকি স্বেচ্ছামূলক অংশেও নিয়ম মানার প্রবণতা বেশ কমে এসেছে (৮৫ শতাংশ)।

একসময় রাইট হোয়েলের সংখ্যা প্রচুর ছিল, কিন্তু কয়েক প্রজন্ম আগে বাণিজ্যিকভাবে তিমি শিকারের কারণে তাদের সংখ্যা অনেক কমে যায়। কয়েক দশক ধরে প্রাণীটিকে এনডেঞ্জারড স্পেসিস অ্যাক্টের অধীনে সুরক্ষা দেয়া হচ্ছে। কিন্তু তাতেও তাদের পুনরুদ্ধার খুব ধীর। নোয়ার তথ্য বলছে, ১৯৯৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ৫০টিরও বেশি তিমি জাহাজে আটকা পড়ে।

বিজ্ঞানীরা এও বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সমুদ্রের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় তিমিগুলো সুরক্ষিত এলাকা থেকে বেরিয়ে জাহাজ চলাচলের লেনে চলে আসছে খাবারের খোঁজে। সাধারণত এসব তিমি জর্জিয়া ও ফ্লোরিডা উপকূলে বাচ্চা জন্ম দেয়, পরে খাওয়ানোর জন্য উত্তর দিকে চলে যায়।

 

রাশিয়ার জন্য প্রধান হুমকি যুক্তরাষ্ট্র: পুতিন

রাশিয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে প্রধান হুমকি হিসেবে উল্লেখ করেছেন ভ্লাদিমির পুতিন। নৌবাহিনী দিবস উপলক্ষে নতুন এক নীতিমালায় স্বাক্ষর দেয়ার পর তিনি এ কথা জানান। জার পিটার দ্য গ্রেট প্রতিষ্ঠিত সেন্ট পিটার্সবার্গের প্রাক্তন সাম্রাজ্যের রাজধানীতে নৌবাহিনী দিবসের বক্তৃতায় রাশিয়াকে সমুদ্রশক্তির অন্যতম দেশ হিসেবে গড়ে তোলা এবং রাশিয়ার বৈশ্বিক অবস্থান উন্নয়নের জন্য পিটারের প্রশংসা করেন পুতিন। —রয়টার্স

আবারও করোনায় আক্রান্ত জো বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আবারও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার ( ৩০ জুলাই) হোয়াইট হাউস থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

৭৯ বছর বয়সী এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট বর্তমানে তার সরকারি বাসভবন হোয়াইট হাউসে আইসোলেশনে আছেন। গত ২১ জুলাই তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। পরে বুধবার ( ২৭ জুলাই) বাইডেনের করোনার ফল নেগেটিভ আসে।

শনিবার বাইডেন জানান, তিনি করোনার লক্ষণগুলো অনুভব করছেন না। তবে চারপাশের সকলের সুরক্ষার জন্য আইসোলেশনে থাকবেন। গত মঙ্গলবার থেকে শুক্রবারের মধ্যে চারবার পরীক্ষা করেছিলেন। প্রত্যেকবাই তা নেগেটিভ আসে।

বাইডেনের চিকিৎসক ডা. কেভিন ও’কনর বলেন, নতুন করে চিকিৎসা নিতে হবে না। তবে প্রেসিডেন্টকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। এরইমধ্যে দুবার করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিয়েছেন বাইডেন। সূত্র: এনডিটিভি

যাযাদি/ এসএইচ

১ ডলার এখন ২৩৯.৩৭ পাকিস্তানি রুপি

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমতে থাকায় ইন্টারব্যাংক বাজারে টানা ১০ দিন অবমূল্যায়নের পরে পাকিস্তানি রুপির সামান্য দর বেড়েছে। শুক্রবার ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানি রুপির দর ছিল ২৩৯.৩৭। যা বৃহস্পতিবার ছিল ২৩৯.৯৪। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, আমদানি পরিশোধের চাপ, রাজনৈতিক সংকট, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের ঋণ বিতরণে দেরি এবং বিদেশি রিজার্ভ কমে যাওয়া ডলারের দাম বৃদ্ধির কারণ।

জিও নিউজ বলছে, এ বছর গ্রিনব্যাকের বিপরীতে পাকিস্তানি রুপি তার মূল্যের ৩০ শতাংশের বেশি হারিয়েছে। দেশটি এই বছর শ্রীলঙ্কার ডিফল্টের পথে যেতে পারে বলে যে আশঙ্কা করা হচ্ছে তা দূর করতে সরকার আইএমএফ এবং চীন ও সৌদি আরবের মতো দেশের কাছ থেকে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার সুরক্ষিত করতে কাজ করছে।

যাযাদি/ এসএইচ

বেসামরিকদের দোনেৎস্ক ছাড়ার নির্দেশ জেলেনস্কির

পূর্ব দোনেৎস্ক অঞ্চলের মানুষকে বাধ্যতামূলকভাবে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। গতকাল শনিবার গভীর রাতে টেলিভিশন ভাষণে তিনি এ ঘোষণা দেন। ওই অঞ্চলে রাশিয়ার সঙ্গে তীব্র লড়াইয়ের আভাস দিয়েছে দেশটির সরকার। খবর রয়টার্স।

জেলেনস্কি বলেন, তীব্র যুদ্ধ চলা বৃহত্তর দনবাস অঞ্চলে কয়েক লাখ বেসামরিক মানুষ এখনো রয়ে গিয়েছে। তাদের দ্রুত ওই অঞ্চলটি ছাড়তে হবে। এছাড়া দোনেৎস্কের পাশাপাশি পার্শ্ববর্তী লুহানস্ক অঞ্চলে থাকা মানুষদেরও ওই অঞ্চল ছাড়ার আহ্বান জানান তিনি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, এখন যত বেশি মানুষ দোনেৎস্ক অঞ্চল ছেড়ে যেতে পারবেন, তত কম লোক হত্যা করার সময় পাবে রাশিয়ার সেনাবাহিনী। তিনি আরো যোগ করে বলেন, যারা ওই অঞ্চল ছেড়ে চলে গিয়েছে কিংবা যাবে তাদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দোনেৎস্কের ওই অঞ্চলে ধীরগতিতে রাশিয়ান বাহিনী অগ্রসর হচ্ছে এবং সেখানে তুমুল সংঘর্ষ দেখা গিয়েছে। রাশিয়া ইতোমধ্যেই এই অঞ্চলের বড় অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে বলেও জানায় বিবিসি।

জেলেনস্কি বলেছেন, আমরা যত বেশি সংখ্যক মানুষের জীবন বাঁচাতে, রাশিয়ার সন্ত্রাসকে প্রতিহত করতে, যত রকম সুযোগ রয়েছে তার সব ব্যবহার করব।

রাষ্ট্রের প্রতি হুমকির তথ্য দিলে নগদ পুরস্কার দেবে চীন

রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা’ হুমকির ব্যাপারে তথ্য জানালে নাগরিকদের এক লাখ ইউয়ান (পনেরো হাজার মার্কিন ডলার) পর্যন্ত নগদ অর্থ পুরস্কার দেবে চীন। নতুন এক ঘোষণায় একথা বলা হয়েছে।

চীন সরকার বহু বছর আগে থেকেই নিরাপত্তা লঙ্ঘন সম্পর্কিত তথ্যের বিনিময়ে আর্থিক পুরস্কার দিয়ে আসছে। কিন্তু এ সপ্তাহে দেশটির রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা মন্ত্রণালয়ের ইস্যু করা নতুন নীতিমালার মাধ্যমে বিষয়টির একটি প্রমিত মান ঠিক করার চেষ্টা করা হয়েছে।

ঘোষিত নীতিমালা অনুসারে নাগরিকদের দেওয়া তথ্য থেকে ‘রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে এমন কর্মকাণ্ডের’ ঘটনা ধরা পড়লে ওই নাগরিক তার ভূমিকার গুরুত্ব অনুযায়ী আর্থিক পুরস্কার পাবেন। সম্ভাব্য বৈদেশিক শত্রুর শঙ্কা নির্মূলে বেইজিংয়ের নেওয়া সর্বশেষ পদক্ষেপ এটি।
সূত্র: এএফপি

ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব করল ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া

মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপিদলীয় জ্যেষ্ঠ দুই কর্মকর্তার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া।

মুসলিম দেশগুলোতে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরুর পর রবিবার বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে সাময়িক বরখাস্ত এবং দিল্লি শাখার গণমাধ্যমপ্রধান নবীন কুমার জিন্দালকেও বহিষ্কার করেছে দলটি।

এক বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, বিজেপি কর্মকর্তাদের মন্তব্য ও টুইট কোনোভাবেই ভারত সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি প্রতিফলিত করে না।

ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তেউকু ফাইজাসিয়াহ বলেছেন, জাকার্তায় নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত মনোজ কুমার ভারতীকে গত সোমবার তলব করা হয়।

ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব করে বিতর্কিত মন্তব্যের বিষয়ে ইন্দোনেশিয়া সরকার প্রতিবাদ জানিয়েছে।
ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় টুইটারে পোস্ট করা বিবৃতিতে বলেছে, মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে দুই ভারতীয় রাজনীতিকের অগ্রহণযোগ্য ও অবমাননাকর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানায় ইন্দোনেশিয়া।

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ভারতীয় রাজনীতিকদের অবমাননাকর বক্তব্য পুরোপুরি প্রত্যাখ্যানের বিষয়টি ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ইসলামভীতি অবসানের পাশাপাশি শান্তি-স্থিতিশীলতার স্বার্থে উসকানিমূলক কর্মকাণ্ড বন্ধে একসঙ্গে কাজ করতে ভারতের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছে দেশটি। সূত্র: আরব নিউজ।

লাদাখে চীনের নির্মাণকাজ উদ্বেগজনক : যুক্তরাষ্ট্র

ভারত-চীন সীমান্তের লাদাখে চীন যে ধরনের অবকাঠামোগত কাজ করছে তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন সেনাবাহিনীর এক শীর্ষ কর্মকর্তা।

এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দায়িত্বপ্রাপ্ত কমান্ডিং জেনারেল চার্লস এ ফ্লিনের কথায়, ‘চীনের এই পদক্ষেপের মোকাবিলা করার জন্য আমাদের জোট বাঁধতে হবে। ’

উপগ্রহ চিত্র অনুযায়ী, এ বছর এপ্রিল থেকে প্যাংগং হ্রদ এলাকায় চীনের তৎপরতা বেড়েছে। উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়েছে, এপ্রিলে একটি ছোট সেতু ও তার পরে মে মাসে আরেকটি বড় সেতু নির্মাণ করেছে চীন।

এলাকার অবকাঠামো উন্নয়নে তথা প্যাংগং হ্রদের চারপাশে নিজেদের যাতায়াত আরও সুবিধাজনক করতে এসব নির্মাণকাজ চালাচ্ছে বেইজিং। এ প্রসঙ্গে বুধবার জেনারেল ফ্লিন বলেন, ‘চীন যে তৎপরতার সঙ্গে ওই এলাকায় নির্মাণকাজ চালাচ্ছে, তা আমাদের চোখ খুলে দিয়েছে। সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন, তারা কেন এই নির্মাণকাজ করছে। ’

মার্কিন এই সেনাকর্মকর্তার মতে, ‘চীনের এই পদক্ষেপ এলাকার ভারসাম্য নষ্ট করে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। এই ধরনের কাজ প্রতারণামূলক এবং এলাকার দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্কের জন্য ক্ষতিকর। চীনের এই পদক্ষেপের মোকাবিলায় অন্যান্য শক্তিকে জোট বেঁধে কাজ করতে হবে। ’

এ বছর অক্টোবর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের যৌথ উদ্যোগে ৯-১০ হাজার ফুট উচ্চতায় সেনাদের প্রশিক্ষণের কাজ শুরু হবে। প্রথমে ভারত ও পরে যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কায় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।
সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা