দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ নেইমার

লিগ ওয়ানে দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন প্যারিস সেন্ট জার্মেইর ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার।

লিগ দে ফুটবল প্রফেশনাল (এলএফপি) এক ঘোষণায় নেইমারের দুই ম্যাচ নিষিদ্ধের কথা নিশ্চিত করেছে।

এই সপ্তাহে লিগ ওয়ানে লিলের কাছে হারের ম্যাচে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডার তিয়াগো দিয়ালোকে শেষ মুহূর্তে ধাক্কা দিয়ে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন নেইমার। পরে তিয়াগো তাকে গালাগাল করে লাল কার্ড দেখেন।

দু’জনকে তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। কিন্তু শাস্তি কমিয়ে তা দুই ম্যাচ করা হয়।

গত শনিবার ১-০ গোলে পিএসজিকে হারিয়ে লিল ৩ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে। ১ পয়েন্ট কম নিয়ে ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের পরে তৃতীয় স্থানে মোনাকো।

নিষেধাজ্ঞার কারণে নেইমারকে ছাড়াই স্ট্রাসবোর্গের দল সাজাতে হবে মাউরিসিও পচেত্তিনোকে। ১৮ এপ্রিল সেন্ত এতিয়েন্নের বিপক্ষে হোম ম্যাচও খেলা হবে না ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের। হলুদ কার্ডের কারণে স্ত্রাসবোর্গের মুখোমুখি হতে পারবেন না পিএসজির দুই মিডফিল্ডার লিয়ান্দ্রো পারেদেস ও ইদ্রিসা গুয়েইয়েও।

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের ২ ধাপ উন্নতি, পেছাল ভারত

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে দুই ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। এর ফলে ১৮৬ থেকে ১৮৪ নম্বরে উঠে এসেছে লাল-সবুজের দল।

১৮ ফেব্রুয়ারির পর আবার র‌্যাংকিং ঘোষণা করল বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। সবশেষ প্রকাশিত এই র‌্যাংকিংয়ে ১৮৬ নম্বরে ছিল জেমি ডে’র শিষ্যরা। সেখান থেকে দুই ধাপ উন্নতি হয়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের।

যদিও বাংলাদেশ গত ২৯ মার্চ নেপালের কাছে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের ফাইনালে হেরেছে। নেপালের অবস্থানে পরিবর্তন হয়নি। তারা আগের মতোই ১৭১ নম্বরে আছে। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের উন্নতি হলেও পিছিয়েছে ভারত। এক ধাপ নেমে ভারত এখন ১০৫ নম্বরে। অন্যদিকে, শীর্ষ ৬ দেশের অবস্থান অপরিবর্তিত আছে।

বিডি প্রতিদিন

ভিনিসিয়াসের জোড়া গোলে উড়ে গেল লিভারপুল

করোনার কারণে ঘরের মাঠে দর্শকবিহীন খেলতে হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদকে। ছিল না দর্শক উল্লাস, তবু খেলায় ভাড়া পড়েনি রিয়ালের। বল দখলের লড়াইয়ে কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও আক্রমণভাগে রিয়াল মাদ্রিদ এদিন ছিল অপ্রতিরোধ্য। তরুণ ভিনিসিয়াস জুনিয়রের জোড়া গোল আর মার্কো অ্যাসেন্সিওর এক গোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। লিভারপুলের হয়ে একমাত্র গোলটি করেছেন মোহাম্মদ সালাহ।

তবে, প্রতিপক্ষের মাঠে মহামূল্যবান একটি অ্যাওয়ে গোল পাওয়ায় ফিরতি লেগে ইয়ুর্গেন ক্লপের দলের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা টিকে আছে ভালোমতোই।

মঙ্গলবার রাতে আলফ্রেদো ডি স্টেফানো স্টেডিয়ামে কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-১ গোলে জিতেছে প্রতিযোগিতার রেকর্ড ১৩ বারের চ্যাম্পিয়নরা।

এদিন লিভারপুলকে পাত্তাই দেয়নি জিনেদিন জিদানের দল। মূল দুই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস ও রাফায়েল ভারানেকে ছাড়া খেলতে নামা রিয়ালের রক্ষণভাগকে প্রথমার্ধে কোনও পরীক্ষাই নিতে পারেনি লিভারপুল। উল্টো তাদের ভঙ্গুর রক্ষণে শুরু থেকেই চাপ বাড়ায় স্বাগতিকরা। আক্রমণের পর আক্রমণে ছিন্নভিন্ন অল রেডসদের রক্ষণ। আর এদিন লস ব্ল্যাঙ্কোসদের আক্রমণকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তরুণ ব্রাজিলিয়ান উঠতি তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়র। অন্যদিকে মাঝমাঠে জিদানের ভরসার আস্থা রেখেছেন লুকা মদ্রিচ এবং টনি ক্রুস।

খেলার বয়স তখন মাত্র মিনিট তিনেক, বল নিয়ে করিম বেনজেমার দুর্দান্ত কারিকুরি এরপর শট কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা রুখে দেন অ্যালিসন বেকার। এরপর ১২ মিনিটের মাথায় লুকা মদ্রিচকে ডি বক্সের ভেতর ফাউল করায় পেনাল্টির জোরাল আবেদন করে রিয়াল কিন্তু রেফারি শেষ পর্যন্ত মন গলাননি তাদের আবেদনে। এর এক মিনিট পর ফারল্যান্ড মেন্ডির ক্রস থেকে হেড করেন ভিনিসিয়াস কিন্তু লক্ষ্যে রাখতে না পারলে বল চলে যায় বাইরে।

এরপর আর বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি গ্যালাক্টিকোদের। ম্যাচের ২৭ মিনিটে টনি ক্রুসের পাস থেকে দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে বল জালে জড়িয়ে দলকে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন ভিনিসিয়াস। তবে এই গোলের মূল কারিগর ছিলেন জার্মান স্নাইপার খ্যাত রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ড মায়েস্ত্রো টনি ক্রুস। মধ্য মাঠে বল পেয়ে লিভারপুলের খেলোয়াড়দের দেওয়ালের ওপর দিয়ে ভিনিসিয়াসের উদ্দেশে লম্বা করে বল বাড়ান তিনি। এরপর বুক দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ঠান্ডা মাথায় শিল্পির মতো তুলির শেষ আঁচড় টানেন ব্রাজিলিয়ান এই তরুণ।

এই গোলের মাধ্যমে চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে রিয়াল মাদ্রিদের দ্বিতীয় কমবয়সী খেলোয়াড় হিসেবে গোল করলেন ভিনিসিয়াস (২০ বছর ২৬৮ দিন)। তার চেয়ে কম বয়সে নকআউট পর্বে গোল করেছেন রিয়াল কিংবদন্তি রাউল গঞ্জালেজ (২০ বছর ২৫৩ দিন)।

১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ার পর আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে জিনেদিন জিদানের দল। দুর্দান্ত সব আক্রমণে ব্যস্ত রাখে অল রেডসদের রক্ষণকে। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে লিভারপুল রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ড বল বিপদমুক্ত করতে দুর্বল হেডে বল গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকারের উদ্দেশে বাঁড়াতে যান। কিন্তু তার আগে অ্যাসেন্সি বল কেড়ে নেন, এরপর অ্যালিসনকে পেছনে ফেলে বল জালে জড়ান অ্যাসেন্সিও।

প্রথমার্ধে লিভারপুলকে নিয়ে যেন ছেলেখেলায় মেতে ওঠে রিয়াল। আরও কিছু দুর্দান্ত আক্রমণ করলেও শেষ পর্যন্ত ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। বিরতি থেকে ফিরেই নিজেদের খুঁজে পেতে শুরু করে অল রেডসরা। রিয়ালকে গুছিয়ে উঠতে সময় না দিয়েই ৫১তম মিনিটে মোহাম্মদ সালাহ দুর্দান্ত এক গোল করে লিভারপুলের ফেরার বার্তা দেন।

তবে লিভারপুলকে খুব বেশি সময় স্বস্তিতে থাকতে দেননি ভিনিসিয়াস। ম্যাচের ৬৫তম মিনিটের মাথায় লিভারপুলের ডি বক্সের ভেতর বল পেয়েও শট নেওয়ার জায়গা পাননি করিম বেনজেমা তাই বল বাড়িয়ে দেন মদ্রিচের দিকে। লুকা মদ্রিচ দেখে নেন ভিনিসিয়াস আছেন গোল করার মতো পজিশনে আর সঙ্গে সঙ্গে তার উদ্দেশেই বল বাড়িয়ে দেন। আর ঠান্ডা মাথায় ভিনিসিয়াস বল জালে জড়িয়ে দলকে ৩-১ ব্যবধান এগিয়ে নেন।

এরপর দুই দলই দুর্দান্ত কিছু আক্রমণ করলেও শেষ পর্যন্ত আর গোলের দেখা পায়নি দুই দলের কেউই। তাই তো ঘরের মাঠে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে লিভারপুলকে ৩-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়েই মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ। কোয়ার্টার ফাইনালের ফিরতি লেগে আগামী ১৫ এপ্রিল লিভারপুলের ঘরের মাঠ অ্যানফিল্ডে দুই দলের মুখোমুখি হওয়ার কথা রয়েছে।

বাফুফেকে অনুদান বন্ধ করে দিলো ফিফা!

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে। প্রতি বছর সাড়ে ৪ লাখ ডলার পেয়ে থাকে বাফুফে। কিন্তু এ বছর নাকি এখনো অনুদান পায়নি।

জানা যায়, অর্থ ব্যয়ের সঠিক হিসাব না পেয়ে ফিফা অনুদান বন্ধ রেখেছে। আজ মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) এ ব্যপারে ফিফার সঙ্গে বাফুফের ভার্চুয়াল মিটিং হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে অনুদানের বিষয়ে আলোচনা করা হবে।

গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, অর্থনৈতিক বিষয়ে অসন্তুষ্ট ফিফা গত ৩০ মার্চ চিঠি পাঠিয়েছে বাফুফেকে।

জানা গেছে, বাফুফের অর্থ বিভাগের প্রধান আবু হোসেনকে বাফুফে হতে কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হয়েছে। বাফুফের কাছে একাধিক প্রতিষ্ঠানের বকেয়া বিল কোটি টাকার ওপর।

তবে এ ব্যাপারে বাফুফের পক্ষ থেকে কোন কিছু জানানো হয়ানি।

বিশালাকৃতির পাপেট উন্মোচিত হবে টোকিও অলিম্পিকে

জাপানে করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের সাথে সংক্রমণের হারও বেড়ে চলছে। তবে অলিম্পিক আয়োজক কমিটি যথাসময়ে গেমস শুরু করতে প্রস্তুত। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও জনপ্রিয় এই ক্রীড়া আসরে ১০ মিটার উঁচু দৈত্যাকৃতির একটি পাপেট উন্মোচন করবে টোকিও অলিম্পিক আয়োজক কমিটি।

জানা গেছে, ইতিমধ্যে জাপানের টচিগি শহরে এসে পৌঁছেছে অলিম্পিকের মশাল। পাপেটের নাম  ‘মক্কো।’ ২০১১ সালে ভূমিকম্প ও সুনামিতে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া জাপানের তিনটি অঞ্চলে এই পাপেট প্রদক্ষিণ করবে। এই সফরটি নিপ্পন উৎসবের অন্যতম প্রধান অনুষ্ঠান। যা টোকিও অলিম্পিকের একটি অফিসিয়ালি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হিসেবে বিবেচিত।

অস্ট্রেলিয়ান ক্রীড়াবিদরা তাদের অলিম্পিক দলের জার্সি উন্মোচন করেছে। করোনার মাঝে অলিম্পিক অংশ নেওয়া অস্ট্রেলিয়ান অ্যাথলিটদের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং হবে বলে জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান দ্য মিশনের প্রধান ইয়ান চেস্টারম্যান।

এদিকে, অস্ট্রেলিয়ান ক্রীড়াবিদরা তাদের অলিম্পিক দলের জার্সি উন্মোচন করেছে। গেমসের জন্য প্রস্তুতি শুরু করেছে অজি অ্যাথলিটরা। সিডনি অপেরা হাউজের সামনে অস্ট্রেলিয়ান অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন শার্লট ক্যাসলিকের সঙ্গে ১০ জন অ্যাথলিট ফটোসেশনে অংশ নেন। গেমসকে সামনে রেখে স্বাস্থ্যবিধির ওপর বেশ গুরুত্ব দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন।

সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৩ জুলাই উদ্ভোধন হবে ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ।’

 

১৯৩ রান করেও দলকে জেতাতে পারলেন না ফখর জামান!

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাবর আজমের সেঞ্চুরিতে জয় পেয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু দ্বিতীয় ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের দেয়া বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ফখর জামান করেন ১৯৩ রান! কিন্তু তার এই দুর্দান্ত ইনিংসটি দুর্ভাগ্যবশত পাকিস্তানের জয় এনে দিতে পারেনি।

রবিবার জোহানেসবার্গে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৪১ রানের বিশাল রান করে। এই রান তাড়া করতে নেমে ১৯৩ রানের এক অবিশ্বাস্য ইনিংস উপহার দেন ফখর জামান। কিন্তু অন্য ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় পাকিস্তান ৯ উইকেট হারিয়ে ৩২৪ রান সংগ্রহ করে। ফলে ১৭ রানের জয় তুলে নিয়ে সিরিজে সমতায় ফিরে প্রোটিয়ারা।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে কুইন্টন ডি কক (৮০), অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা (৯২) রানে শুরুটা দুর্দান্ত করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে ইতিবাচক শুরু এনে দিয়েছেন এইডেন মার্করামও (৩৯)।

কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রায় সাড়ে তিনশ’ রান এনে দিয়েছেন প্রথম ম্যাচের সেরা দুই ব্যাটসম্যান। সেদিন সেঞ্চুরি করা রাসি ফন ডার ডুসেন আজ ৩৭ বলে তুলেছেন ৬০ রান। ডেভিড মিলারের অপরাজিত ফিফটির ইনিংসটি ছিল ২৭ বলের। ফলে ৬ উইকেটে ৩৪১ রানের বড় সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বড় লক্ষ্যে তাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই ইমাম উল হক বিদায় নেন। এরপর ৬৩ রানের জুটি গড়ে বাবর আজম ৩১ রান করে বিদায় নেন। এরপর দলকে ৭১ রানে রেখে মোহাম্মদ রিজওয়ানের বিদায়ের পর তো ম্যাচের ভাগ্য লেখা হয়েই গিয়েছিল। ক্ষণিক পর পরই উইকেট হারিয়েছে পাকিস্তান। ১২০ রানে পঞ্চম উইকেট হারায় সফরকারীরা। কিন্তু ফখর জামান হার মানেননি।

আসিফ আলীকে নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়ে শুরুটা করেছেন। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে আসিফের অবদান মাত্র ১৯। অবশ্য পরের জুটিগুলোতে ফখরের একক আধিপত্য আরও স্পষ্ট হয়েছে। আসিফ যখন আউট হয়েছেন, তখনো ১৬ ওভারে ১৫৬ রান দরকার ছিল পাকিস্তানের। ফখর সঙ্গী হিসেবে পাননি কাউকে। তবু শেষ ৪ ওভারে মাত্র ৫৬ দরকার ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু ফখর জামান একপ্রান্ত আগলে রাখলেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ১৯৩ রান করে রান আউটের শিকার হন ফখর জামান।

১৫৫ বলে ১৮ চার ও ১০ ছক্কার অনবদ্য ইনিংসের জন্য ম্যাচ সেরার পুরস্কার অবশ্য ফখর জামানের হাতেই উঠে।

আইপিএলে বাড়ছে করোনার হানা, নতুন পরিকল্পনা ভারতীয় বোর্ডের

করোনা হানায় নাকাল আইপিএল সংসার। ওয়াংখেড়ের দশ জন মাঠকর্মী, আইপিএলের সংগঠক টিমের ছ’জন, সিএসকের কনটেন্ট টিমের একজন, দুই ক্রিকেটার অক্ষর প্যাটেল এবং দেবদূত পাড়িক্কল-সহ মোট উনিশ জন এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত। এই পরিস্থিতিতে ক্রিকেটারদের নিয়ে নয়া ভাবনা ভারতীয় বোর্ডের মাথায়। আর সেটা জানালেন খোদ বোর্ডের ভাইস প্রেসিডেন্ট।

মহারাষ্ট্রে যেমন উত্তরোত্তর করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, তাতে বড়সড় প্রশ্ন উঠে গিয়েছে যে, আদৌ ওয়াংখেড়েতে ম্যাচ করা সম্ভব হবে তো? বোর্ড পরিবর্তিত কেন্দ্র হিসেবে রেখেছে হায়দরাবাদ আর ইন্দোরকে। কিন্তু বোর্ড কর্তারাও কার্যত মেনে নিচ্ছেন, এখন মুম্বাই থেকে ম্যাচ সরিয়ে অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়া অসম্ভব। বরং ভারতীয় বোর্ড দ্বিতীয় একটা রাস্তার কথা ভাবছে। বোর্ড চেষ্টা করছে, আইপিএল খেলা ক্রিকেটারদের করোনা প্রতিষেধক দেওয়ার বন্দোবস্ত করা যায় কি না?

রবিবার ভারতীয় বোর্ডের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাজীব শুক্লা বলে দিয়েছেন যে, করোনা টিকা নেওয়াই একমাত্র রাস্তা। “বোর্ড তাই ভাবছে ক্রিকেটারদের করোনা টিকা দিয়ে দেওয়া সম্ভব হয় কি না? কেউ জানে না কবে করোনা এসে আক্রমণ করবে। একবার টিকা নিয়ে নিলে ক্রিকেটাররা অনেক খোলা মনে খেলতে পারবে,” বলে দিয়েছেন শুক্লা।

বোর্ড ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে ক্রিকেটারদের করোনা টিকাকরণের আবেদন করেছে কি না জানতে চাইলে শুক্লা বলেন, “বোর্ড ভাবছে ব্যাপারটা নিয়ে। আমি নিশ্চিত, এ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলা হবে।”

তবে সমস্যা একটাই। আইপিএল শুরুর হতে আর পাঁচ দিনও বাকি নেই। তাই এই ক’দিনের মধ্যে ক্রিকেটারদের টিকাকরণ সম্ভব কি না, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন

বার্সাকে মেসির ৩ শর্ত

জল্পনা শুরু হয়েছে আগামী বছর লিওনেল মেসির বার্সেলোনা থাকা না থাকা নিয়ে। বিষয়টি নিয়ে যখন তুমুল আলোচনা, তখন বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষকে তিনটি শর্ত দিলেন মেসি বলে জানা গেছে। বলা হচ্ছে, শর্তগুলো পূরণ হলে তবেই বার্সায় থাকার কথা ভাববেন মেসি।

শর্তগুলোতে বলা হয়ছে, আগামী মৌসুমে এমন এক টিম বানানো হোক, তাতে যেন ভারসাম্য থাকে। তারকার পিছনে ছুটুক ক্লাব, সেটা একেবারেই চাইছেন না। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সাফল্য নেই বার্সার। ক্লাবের খারাপ সময় যাচ্ছে। যে কারণে সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে মেসিদের।

এছাড়া মেসি যে কোনও প্রয়োজনে ক্লাব প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সরাসরি কথা বলার জায়গা খোলা রাখার দাবি রেখেছেন।যাতে টিমের মধ্যে কোনও সমস্যা, কোচের সঙ্গে কোনও ঝামেলা কিংবা অন্য কোনও বিতর্ক তৈরি হলে যাতে সরাসরি কথা বলে মেটাতে পারেন তিনি।

উল্লেখ্য, জুলাই মাস থেকে ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাবেন মেসি। যে কারণে তাকে পেতে মরিয়া হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ছে বিশ্বের অন্যতম সেরা টিমগুলো। মেসি কী ভাবছেন? তিনি কোন ক্লাবে খেলবেন? এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা। কিন্তু মেসিকে বার্সাতেই রেখে দেওয়ার জন্য মরিয়া কর্তারা।

সূত্র : টিভি৯।

পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ডের দাবি মেনে নিল ভারতীয় বোর্ড

বিশ্বকাপ খেলতে আসার জন্য ক্রিকেটারদের ভিসা যাতে দ্রুত নিশ্চিত করা হয়, সেজন্য বিসিসিআই’র কাছে লিখিত আশ্বাস চেয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সৌরভ গাঙ্গুলির ভারতীয় বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আগামী এক মাসের মধ্যে সমস্যার সমাধান করা হবে। কর ছাড় নিয়েও আশ্বাস দেওয়া হয়েছে আইসিসি–কে।

অক্টোবর–নভেম্বরে ভারতে হবে টি–২০ বিশ্বকাপ। তার আগে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি চেয়েছিলেন পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের দ্রুত ভিসা দেওয়ার ব্যাপারটা নিশ্চিত করা হোক। বিসিসিআই সেই দাবি মেনে এপ্রিলের মধ্যে লিখিত আশ্বাস দেবে বলে জানা গেছে।

দীর্ঘদিন ধরেই দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বন্ধ। দুই প্রতিবেশী দেশ ক্রিকেট মাঠে এখন মুখোমুখি হয় কেবল আইসিসি–র প্রতিযোগিতাতেই। কিন্তু সেখানেও সম্প্রতি দু’দেশের ঝামেলা সামনে এসেছে। পাকিস্তানে ২০২০ এশিয়া কাপ হওয়ার কথা ছিল। যদিও কোভিডের কারণে তা পিছিয়ে গিয়েছে এবং চলতি বছর শ্রীলঙ্কায় সেই প্রতিযোগিতা হবে। কিন্তু তার আগে পাকিস্তানে খেলতে যাবে না বলে বেঁকে বসেছিল ভারত। ২০২২–এর এশিয়া কাপ পাকিস্তানে হওয়ার কথা। সেই প্রতিযোগিতায় ভারত অংশগ্রহণ করবে কি না, তা এখনও জানা যায়নি। ভারত এবং পাকিস্তান শেষবার মুখোমুখি হয়েছিল বছর দেড়েক আগে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে। বৃষ্টিবিঘ্নিত সেই ম্যাচে ভারত ডাকওয়ার্থ–লুইস নিয়মে ৮৯ রানে হারিয়ে দেয় পাকিস্তানকে। ১৪০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন রোহিত শর্মা। ৭৭ করেছিলেন বিরাট কোহলি।

টি–২০ বিশ্বকাপে শেষবার দু’দেশ মুখোমুখি হয়েছিল ১৯ মার্চ ২০১৬ সালে, কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে। সেই ম্যাচ জিতেছিল ভারত।

উল্লেখ্য, ৫০ ওভার হোক বা ২০ ওভার, কোনও বিশ্বকাপেই এখনও পর্যন্ত ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান।

পাশাপাশি, এতদিন কর ছাড় নিয়ে আইসিসি’র সঙ্গেও দড়ি টানাটানি চলছিল বিসিসিআই’র। টি–২০ বিশ্বকাপ ছাড়াও যাতে ২০২৩ সালের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ আয়োজন করতে কর ছাড় দেওয়া হয়, তার নিশ্চয়তা চেয়েছিল আইসিসি। সেটিও দ্রুত সমাধান করে দেবে বলে জানিয়েছে বিসিসিআই।

করোনার কারণে টি–২০ বিশ্বকাপে জৈব সুরক্ষা বলয়ে ক্রিকেটারদের থাকতে হতে পারে। তাই দলের সদস্য সংখ্যা বাড়িয়ে ২৩ থেকে ৩০ করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন

টেস্ট স্ট্যাটাস পেল বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল

টেস্ট স্ট্যাটাস পেয়েছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। ফলে সাকিব-তামিদের পাশাপাশি এখন থেকে সালমা খাতুন-জাহানারা আলমরাও টেস্ট খেলতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়। এতে বলা হয়, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত আইসিসির এক বৈঠকে সংস্থাটির পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর নারী দলকে টেস্ট স্ট্যাটাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। আর এই সিদ্ধান্তেই সালমা-জাহানারাদের জন্য খুলে যায় টেস্ট খেলার দরজা।

বাংলাদেশ পুরুষ ক্রিকেট দল টেস্ট স্ট্যাটাস পায় ২০০০ সালে। প্রায় দুই দশক পার করে এবার এদেশের নারীরা পেলেন টেস্ট খেলার সুযোগ।

বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল ওয়ানডে স্ট্যাটাস পায় ২০১১ সালে। সাত বছরের মাথায় এবার ক্রিকেটের কুলীন ফরম্যাটে নাম লেখালেন বাংলাদেশের মেয়েরা।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের দশটি দেশের নারীরা টেস্ট ক্রিকেট খেলে। দলগুলো হলো- অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ভারত, পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা, নেদারল্যান্ডস ও আয়ারল্যান্ড। এর মধ্যে নেদারল্যান্ডস ও আয়ারল্যান্ডস আইসিসির সহযোগী সদস্য।